অবশেষে না ফেরার দেশে চলে গেলেন কৃষকলীগ নেতা

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৬ মাস আগে

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি : অটোরিক্সা চাপায় গুরুতর আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বারডেম হাসপাতালের চিকিৎসক কর্তৃক মৃত ঘোষণার পর লাশ নিয়ে বাড়ী ফেরার পথে পুনরায় জীবিত হওয়া কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলা কৃষকলীগ যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রহিম মজুমদারের (৫০) শেষ রক্ষা হলো না। সোমবার রাত আনুমানিক পৌনে ৯টার দিকে ঢাকার বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরণ করেন। ৭জুন মঙ্গলবার রাতে উপজেলার জোড্ডা বাজারে বেপরোয়া গতির অটোরিক্সা চাপায় তিনি গুরুতর আহত হন। আব্দুর রহিম মজুমদার কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাঙ্গলকোট উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এম এ করিম মজুমদারের ছোট ভাই। এর আগে গত ৯ই জুন বৃহস্পতিবার রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুর খবরে তার নিজ বাড়ীতে চলে লাশ দাফনের সকল প্রস্তুতি। কিন্তু স্বজনরা লাশ বাড়িতে নিয়ে আসতে এ্যাম্বুলেন্সে উঠানোর পর নড়ে উঠেন তিনি। পরে স্বজনরা তাকে দ্রুত অন্য একটি হসপাতালে ভর্তি করেন। সর্বশেষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়নের নারায়নকোট গ্রামের আব্দুর রহিম মজুমদার গত ৭জুন রাত ৮টার দিকে জোড্ডা বাজারে বিসমিল্লাহ সুইটস সংলগ্ন রাস্তার পাশ দিয়ে হাটার সময় জোড্ডা গ্রামের নজরুল ইসলাম নজুর ভাগিনা একই গ্রামের অটোরিক্সা চালক পারভেজ হোসেন বেপরোয়া গতিতে এসে আব্দুর রহিম মজুমদারকে চাপা দেয়। এসময় তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলে এবং মুখ দিয়ে রক্তক্ষরণ হতে থাকে। তাকে উদ্ধার করে নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে প্রথমে কুমিল্লায় ও পরে ঢাকার নিউ লাইফ হসপিটালের আইসিইউ বিভাগে ভর্তি করা হয়। সর্বশেষ সোমবার রাতে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। আব্দুর রহিম মজুমদারের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের মাতম চলছে।
উল্লেখ্য, নিহত আব্দুর রহিম মজুমদার (স্ত্রী) ১ কন্যা ও ১ পুত্র সন্তান সহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন শুভাকাঙ্খি রেখে গেছেন। তাঁর জানাযা আজ বাদ এশা নারায়নকোট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হবে।