আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে প্রথম অঘটন সৌদি আরবের

ফুটবল বিশ্বকাপ
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

কাতার বিশ্বকাপে প্রথম অঘটন। দু’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনাকে ২-১ গোলে হারিয়ে দিয়েছে সৌদি আরব।

শেষের শুরুটা দারুণ করেন আর্জেন্টিনার সুপারস্টার লিওনেল মেসি। সৌদি আরবের বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে দশম মিনিটে তার দেয়া পেনাল্টি গোলে লিড পায় ১৯৮৬ সালের চ্যাম্পিয়নরা। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সমতায় ফিরলো সৌদি আরব। ৪৮তম মিনিটে গোল করেন সালেহ আল শেহরি। পাঁচ মিনিটের মধ্যেই লিড নেয় সৌদি আরব। ৫৩তম মিনিটে দুর্দান্ত গোল উপহার দিয়েছেন সালেম আল দোসারি। এ গোলেই শেষতক ঐতিহাসিক জয় কুড়ায় সৌদি আরব।

ম্যাচের নবম মিনিটেই ফ্রি-কিক পায় আর্জেন্টিনা। কিক নেন মেসি। এ সময় বক্সের মধ্যে লিয়ান্দ্রো প্যারেদেসকে ফেলে দেন আল বুলাইহি।

এরপরই ভিএআর চেক করে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। ৭ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী ফুটবলার লিওনেল মেসির এটাই শেষ বিশ্বকাপ এবং এবারই শেষ সুযোগ তার বিশ্বকাপ জয়ের। সে লক্ষ্যেই সৌদি আরবের বিপক্ষে সূচনাটা ভালোই হয়েছে বলা যায় মেসির। তবে এই পেনাল্টির পর দারুণ একটা পরিসংখ্যানও সামনে চলে এলো। ১৯৯৮ বিশ্বকাপের পর এই প্রথম পেনাল্টি থেকে গোল করলো আর্জেন্টিনা। 

ম্যাচের শুরু থেকেই বল নিয়ন্ত্রণে রেখে প্রভাব বিস্তার করে খেলার চেষ্টা করে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই মেসির বাঁ পায়ের দুর্দান্ত একটি শট অসাধারণ দক্ষতায় ফিরিয়ে দেন সৌদি গোলরক্ষক আল ওয়েসিস।
২২তম মিনিটে একটি গোল করেন মেসি। কিন্তু লাইন্সম্যান আগেই ফ্ল্যাগ তুলে দাঁড়িয়ে থাকেন। জানালেন এটা ছিল অফসাইড। ২৮ মিনিটে লওতারো মার্টিনেজ গোল করেন। কিন্তু এবারও ভিএআরের কারণে দেকা গেলো তিনি ছিলেন অফসাইডে। সুতরাং গোল বাতিল। ৩৪ মিনিটে আরও একবার সৌদির জালে বল জড়ায় আর্জেন্টিনা। কিন্তু তার আগেই সাইড রেফারি জানিয়ে দেন- এটা ছিল অফসাইড।

আর্জেন্টিনা একাদশ : ফরমেশন (৪-২-৩-১)
এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, নাহুয়েল মোলিনা, ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো, নিকোলাস ওতামেন্দি, নিকোলাস তালিয়াফিকো, রদ্রিগো ডি পল, লিয়ান্দ্রো প্যারেদেস, আলেহান্দো (পাপু) গোমেজ, লিওনেল মেসি, লওতারো মার্টিনেজ, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া।
কোচ: লিওনেল সেবাস্তিয়ান স্কালোনি

সৌদি আরব একাদশ : ফরমেশন (৪-৪-১-১)
মোহাম্মদ আল ওয়াইজ, সৌদ আব্দুল হামিদ, হাসান আলতামবাকতি, আলি আল-বুলাইহি, ইয়াসের আল-শাহরানি, সালমান আল-ফারাজ, মোহাম্মদ কানো, আব্দুলেলাহ আল-মালকি, ফিরাস আল-ব্রিকান, সালেহ আল-শেহরি, সালেম আল-দাওসারি।
কোচ: হার্ভ জিন ম্যারি রজার রেনার্ড