ঈদ করতে হেলিকপ্টারে চড়ে শ্বশুরবাড়িতে এলেন মালয়েশিয়ান বধূ

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

চাঁদপুর প্রতিনিধি : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে হেলিকপ্টারে চড়ে শ্বশুরবাড়িতে এলেন মালয়েশিয়ার নাগরিক লিজা। তার তিন ছেলে-মেয়েকে নিয়ে বাংলাদেশে স্বামী সুমন ব্যাপারীর গ্রামের বাড়িতে এলেন নূর ইনা লিজা নামে এই বধূ।

এই প্রথম বিদেশি কোনো নারীকে গ্রামে দেখে এলাকার উৎসুক লোকজনের মাঝে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। এ সময় তাদের একনজর দেখতে শত শত নারী-পুরুষ ভিড় জমান ফরিদগঞ্জ এ আর পাইলট হাই স্কুল মাঠে।

শুক্রবার সকালে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে এই স্কুল মাঠে অবতরণ করেন তারা। এর আগে রাজধানী ঢাকা থেকে রওনা দেন। পরে সুমনের পরিবার তাদেরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে বাড়ি নিয়ে যায়।

৩৮ বছরের যুবক সুমন ব্যাপারী ফরিদগঞ্জ উপজেলার নয়ারহাট চিরকা গ্রামের মৃত মজিবুল হক ব্যাপারীর ছেলে। সুমন এই প্রথম তার স্ত্রী নূর ইনা লিজা, মেয়ে সুফিয়া সারিনা এবং দুই ছেলে ওমর আরাফাত ও আরমান আরিফকে সঙ্গে নিয়ে নিজ গ্রামে ঈদ করতে আসেন। দীর্ঘদিন পর নিজ এলাকায় বিদেশি বধূ নিয়ে এসে আনন্দিত সুমন।

মালয়েশিয়ার নারী নূর ইনা লিজা বলেন, বিয়ের দশ বছর পর এই প্রথম শ্বশুরবাড়িতে ঈদ করব।

স্বামী সুমন ব্যাপারী বলেন, আমার বাবা, মা আর আত্মীয়-স্বজনের আবদার ছিল বউকে নিয়ে দেশে আসি। আর তাদের সেই ইচ্ছা পূরণ করতে এবারের ঈদে তাকে এবং সন্তানদের নিয়ে দেশে এলাম। আশা করছি, সবাই মিলে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে পারব।