কুমিল্লার আবাসিক হোটেলে অগ্রিম বুকিং দিচ্ছে নেতারা ২৩ থেকে ২৬ নভেম্বর সিট খালি নেই কোন হোটেলে

বিএনপির গণসমাবেশ :
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ সপ্তাহ আগে

কুমিল্লা নগরীর অধিকাংশ আবাসিক হোটেলে ২৫ ও ২৬ নভেম্বরের সিট অগ্রিম বুকিং হয়ে গেছে। বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশকে সামনে রেখে আগাম সিট নির্ধারণ করেছেন অন্যান্য জেলার নেতা-কর্মীরা। হোটেলের মালিক ও ম্যানেজারদের কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।
কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের তথ্যমতে, কুমিল্লায় বেসরকারি ৫৬টি হোটেল ও আবাসন ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এছাড়াও রেলওয়ে স্টেশন, নগরী, মহাসড়ক সংলগ্ন রয়েছে আরো অর্ধশত আবাসিক হোটেল। সব মিলিয়ে কুমিল্লার শতাধিক আবাসিক হোটেলে অনুমানিক হাজার সিট রয়েছে।
শাসনগাছার ঢাকা রেষ্ট হাউসের পরিচালক হাজী আহাম্মদ আলী জানান, আবাসিক হোটেলে থাকার জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র, মোবাইল নম্বর ও তাদের ছবি আমরা সংগ্রহে রাখি। হোটেলে থাকার কিছু নিয়ম আছে। এখান মাদক সেবন করা যাবে না। অসামাজিক কোন কাজ করতে পারবে না। আমাদের শর্তসমূহে মেনে অনেকে আগাম সিট বুকিং করতেছেন। তারা কি কাজে হোটেলে থাকবেন, তা আমরা জানি না।
পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডের বৃহৎ ও পুরাতন প্রতিষ্ঠান হোটেল নূর জাহান কতৃপক্ষ জানিয়েছে ২৫ ও ২৬ নভেম্বর সিট খালি নেই। এখানে চারটা রোমে আটজন থাকতে পারে।
নগরীর রেড রোফ ইন হোটেল এন্ড রেষ্টুরেন্টের ম্যানাজার ওয়াহিদুর রহমান জানান, আমাদের ২৮জন থাকার ব্যবস্থা আছে। তবে ২৩ তারিখ থেকে ২৬ তারিখ সিট খালি নেই।