কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ভাইরাল সেই অস্ত্র মধ্যরাতে থানায়

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে যুবলীগ নেতা মনিরুজ্জামান জুয়েলের অস্ত্রসহ যে ছবি ভাইরাল হয়েছে সেই অস্ত্রটি এখন থানায় রয়েছে। শনিবার রাত ১টার দিকে অস্ত্রটি নিয়ে জমা দেন তার স্ত্রী ফারজানা হক।
এসময় ফারজানা একটি সাধারণ ডাইরি করেন। এতে তিনি লিখেন, তার স্বামী মনিরুজ্জামান হঠাৎ শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তার সম্মতিতেই অস্ত্রটি এবং গুলির নিরাপত্তার স্বার্থে থানা হেফাজতে রাখার আবেদন করেন।
চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, ভাইরাল হওয়া ছবিটা অনেক আগের। তারপরেও যেহেতু এই ছবি নিয়ে সারা দেশে আলোচনা তাই তার পরিবার অস্ত্রটি পুলিশ হেফাজতে দিয়েছে। মিলিয়ে দেখলাম অস্ত্রটির লাইসেন্স আছে। চেক ডিজঅনারের একটি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরওয়ানা আছে। তাই আমরা তাকে ধরতে চেষ্টা করছি।
এদিকে দেখতে অত্যাধুনিক জিএসজি-৫ মডেলের রাইফেল। এটির নাম্বার (A354916). এটির গায়ে লেখা মেইড ইন জার্মানি।
উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের গোপালনগর গ্রামের এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে দাওয়াত খেয়ে ব্যক্তিগত গাড়িতে নিজ গ্রাম মান্দারিয়ায় ফিরছিলেন চেয়ারম্যান শাহজালাল মজুমদার। নালঘর পশ্চিম বাজার সামাদ মেম্বারের বাড়ির কাছে তার গাড়ির গতিরোধ করে হামলা চালান ‘যুবলীগ নেতা’ হিসেবে পরিচিত মনিরুজ্জামান জুয়েলসহ ৭/৮ জন। এ সময় চেয়ারম্যান গাড়ি থেকে নেমে দৌড়ে একটি বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেন। একপর্যায়ে হামলাকারীরা তার গাড়ি হকিস্টিক দিয়ে ভাঙচুর করেন। চেয়ারম্যানের দাবি এসময় এই অস্ত্রটি প্রদর্শন ও তাকে হত্যার চেষ্টা করেন মনিরুজ্জামান। পরে এই অস্ত্রটিসহ ছবিটি পোস্ট করেন চেয়ারম্যান শাহজালাল মজুমদার। এরপরই সারাদেশে ভাইরাল হয় তার অস্ত্রসহ ছবিটি।