কুমিল্লায় ঈদের ছুটিতে সড়কে সাংবাদিকসহ ৭ জন নিহত

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

কুমিল্লায় ঈদের ছুটিতে মহাসড়কে পৃথক ৪টি দুর্ঘটনায় সাংবাদিকসহ সাতজন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ঈদের আগের দিন জেলার দাউদকান্দিতে বাসের চাপায় এক সাংবাদিকসহ মোটরসাইকেল আরোহী তিনজন নিহত হয়েছেন। ঈদের দিন পৃথক তিনটি দুর্ঘটনায় চাচা-ভাতিজাসহ মারা গেছেন চারজন।

শনিবার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার বেকিনগর এলাকায় মোটর সাইকেলে বাস চাপা দেওয়ার ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- উপজেলার বেকিনগর গ্রামের আবদুল হকের ছেলে সংবাদকর্মী রাসেল আহমেদ (২৮), তার চাচাতো ভাই মোটরসাইকেল থাকা একই গ্রামের শাহজালাল সরকারের বড় ছেলে মো. শরিফ সরকার (৩০) ও তৃতীয় ছেলে তাফসীর সরকার (১৮)। সদ্য জন্ম নেওয়া সন্তান ও স্ত্রীকে হাসপাতাল থেকে আনতে গিয়ে ওই সাংবাদিক বাস চাপায় নিহত হয়েছেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানায়, সাংবাদিক রাসেল আহমেদ তার দুই চাচাতো ভাইকে নিয়ে বাড়ি থেকে পাশের ইলিয়টগঞ্জ বাজারে যাচ্ছিলেন। মহাসড়কের জিংলাতলী-বেকিনগর এলাকায় লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী আল বারাকা পরিবহনের একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এ সময় বাসটি পাশের খাদে পড়ে যায়।
দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক মোস্তফা কামাল জানান, জিংলাতলী-বেকিনগর সড়ক থেকে একটি মোটরসাইকেল মহাসড়কে উঠলে একটি বাস এটিকে চাপা দেয়। মোটরসাইকেল আরোহী তিনজনকে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে গ্রাম থেকে কোরবানির মাংস নিয়ে বাসায় ফেরার পথে বাসচাপায় চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছেন। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা কোটবাড়ি বিশ্বরোড এলাকায় ঈদেও দিন রোববার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন বরুড়া উপজেলার খোশবাস উত্তর ইউনিয়নের নবীপুর গ্রামের মাকছুদুর রহমান ওরফে মাসুদ রানা (৩৮) এবং তার সাত বছর বয়সী ভাতিজা ফাহাদ হোসেন।

বরুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল বাহার মজুমদার জানান, নবীপুর গ্রাম থেকে কোরবানির মাংস নিয়ে মোটরসাইকেলে কুমিল্লা শহরের বাসায় ফেরার সময় একটি বাস তাদের চাপা দেয়।

অপরদিকে ঈদের দিন দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার নিমসারে বাজারে মহাসড়ক পারাপারের সময় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় রাহেলা বেগম (৪০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। নিহত ওই নারী নিমসার মুহুরি বাড়ির মৃত সেলিম মিয়ার স্ত্রী। এছাড়া একই দিন বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা সদর উপজেলার আলেখারচর চক্ষু হাসপাতালের সামনে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় কাজী সাকিব হোসেন নামে এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে ।

ময়নামনি হাইওয়ে থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, এই দু’টি দর্ঘটনার কথা শুনেছি। তবে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই পরিবারের সদস্যরা মরদেহ নিয়ে চলে গেছেন।