কুমিল্লায় দুর্ঘটনা কবলিত প্রাইভেটকার থেকে বিপুল পরিমান গাঁজা উদ্ধার; আটক ২

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ বছর আগে

কুমিল্লার ময়নামতি সুপার মার্কেটের সামনের ফুটওভার ব্রিজের নিচে থেকে ৫৪কেজি গাঁজা ও একটি নিশান প্রাইভেটকারসহ ২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ।

সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১ টার সময় কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার ময়নামতি ক্যান্টনমেন্ট এলাকার ময়নামতি সুপার মার্কেট এর সামনে ফুটওভার ব্রীজের নিচে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ডিবি পুলিশ সূত্র জানায়, অভিযানকারী ডিবি টীম গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারেন, চৌদ্দগ্রাম থেকে ঢাকা-মেট্রো-খ-১২-০৩৭৯ রেজিঃ নাম্বারের একটি কালো রংয়ের নিশান গাড়ি মাদক নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাবে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে ডিবি টিম ময়নামতি সুপার মার্কেট এর সামনে মাদকবাহী গাড়িটির জন্য রাস্তার পাশে দাড়িয়ে অপেক্ষা করতে থাকে।

মাদকবাহী গাড়িটি ময়নামতি সুপার মার্কেট এর কাছাকাছি আসলে গাড়িটিকে সিগন্যাল দেওয়া মাত্রই গাড়ীর চালক ডিবি পুলিশের উপস্থিতি বুঝতে পেরে বেপরোয়া গতিতে রাস্তার পাশে থাকা ডিবি টীমের গাড়ীটিকে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যাওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার মাঝখানের ডিভাইডার এ তুলে দেয়।

এতে মাদকবাহী গাড়ী ও ডিবি টীমের গাড়ীর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরবর্তীতে ডিবির অফিসার ও ফোর্স উক্ত গাড়ী হতে ২ জনকে আটক করে নিজেদের হেফাজতে নেয় এবং উপস্থিত লোকজনদের সহযোগীতায় গাড়িটি তল্লাশি করে গাড়ীর ভিতরে পিছনের সিটের উপর দুইটি ট্রাভেল ব্যাগ থেকে ৫৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে।

গ্রেফতার হওয়া আসামিরা হলেন, কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার দড়িবট গ্রামের হারুন মিয়ার ছেলে মোঃ শাহরিয়ার কবির (৩৩) ও একই গ্রামের আব্দুর কাদেরের ছেলে মোঃ আবুল হোসেন (২৮)।

গ্রেফতার হওয়া আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, উল্লেখিত মাদকদ্রব্য গাঁজা ভারতীয় সীমান্তবর্তী এলাকা হতে স্বল্প মূল্যে ক্রয় করে অধিক মূল্যে বিক্রয়ের জন্য আসামীরা ঢাকায় নিয়ে যাচ্ছিল। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে একাধিক মাদক মামলা বিচারাধীন রয়েছে ।

এ ঘটনায় কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।