কুমিল্লায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ৩

মামার সাথে বাড়ি ফেলা হলো না শ্রাবন্তির
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

জহিরুল হক বাবু।।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক, কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক ও কুমিল্লা-নোয়াখালী মহাসড়কে পৃথক তিনটি সড়ক দূর্ঘটনায় এক কলেজ ছাত্রীসহ ৩ জন নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছে অন্তত ২২ জন। শুক্রবার ভোর রাতে দুটি ও সকালে একটি দূর্ঘটনা ঘটে।

ময়নামতি হাইওয়ে ক্রসিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর জানায়, শুক্রবার ভোর সাড়ে ৩ টায় কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের বুড়িচং উপজেলার সাহেব বাজার পুরাতন ওয়েট স্কেলের সামনে ব্রাহ্মণবাড়ীয়াগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে বিপোরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সংঘর্ষ হয়ে। এতে বাসটি উল্টে পাশের একটি খাদে পরে যায়। এ সময় বাসের হেলপার নিহত হয়। দূর্ঘটনায় অন্তত ১৫ জন বাসযাত্রী আহত হয়েছে। এদের মধ্যে ৫ জনের অব¯’া আশংখ্যাজনক। ¯’ানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কুমিল্লার বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠিয়েছে। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

অপর দিকে ভোর সাড়ে ৪ টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা কোটবাড়ী বিশ^রোড এলাকায় কুমিল্লাগামী একটি মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাকের সাথে ধাক্কা লাগে। এতে মাইক্রোবাসে থাকা আনিসুর রহমান ভূইয়া (৩৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। দূর্ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ৬ জন। নিহতে আনিসের বাড়ী বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের কিংবাজেহুরা গ্রামে। সে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে কর্মরত ছিলো। ঈদের ছুটিতে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মাইক্রোবাস যোগে বাড়ী ফিরছিলো সে।

অন্যদিকে মামার মোটরসাইকেলে করে বাজার থেকে বাড়ী ফেরার পথে ট্রাক চাপায় শ্রাবন্তি (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্রী নিহত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১ টায় কুমিল্লা-নোয়াখালী মহাসড়কের লাকসাম উপজেলার উত্তরদা এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে।

লালমাই হাইওয়ে থানার ইনচার্জ মাকসুদ আলম জানান, মামা ফয়েজ ইকবালের সাথে বাজার থেকে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ী ফেরার পথে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত শ্রাবন্তি লাকসাম নবাব ফয়েজুন্নেছা কলেজের অনার্স ২য় বর্ষের ছাত্রী ছিলো।