কুমিল্লায় বিদেশ ফেরত ছেলের হাতে মা খুন: ঘাতক ছেলে আটক

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

কুমিল্লার লালমাই উপজেলায় বিদেশ ফেরত ছেলের শাবলের আঘাতে মা নুরজাহান বেগম চশমা খুন হয়েছে। ঘাতক ছেলের নাম নুরে আলম সবুজ। শনিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুর ২ টায় জেলা লালমাই উপজেলার কনকশ্রী দক্ষিণ পাড়ায় পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের কনকশ্রী দক্ষিণ পাড়ায় এঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার সাইদুল ইসলাম তিতু ।
এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে জানা যায়,মাত্র ৫ দিন আগে দেশে আসার পর থেকে সবুজ পরিবারের কারো সাথে কথাবার্তা বলতো না। সবসময় চুপচাপ থাকত। ২ বছর সৌদি থাকলেও দেশে কোন টাকা-পয়সা পাঠাতে পারেনি।
শনিবার হঠাৎ করে পিতা কামাল হোসেন রাজা মিয়া, ভাই আরশাদসহ কয়েকজনকে মারধর করে। পরে পার্শ্ববর্তী নানার বাড়িতে গিয়ে মামা কামরুল ইসলামের স্ত্রী প্রীতি , মামাতো বোন মাইশাকেও মারধর করে। এ সময় ঐ বাড়ির লোকজন তাদেরকে রক্ষায় এগিয়ে এলে স্থানীয় তোফায়েল হোসেন সহ কয়েকজনকেও মারধর করে সবুজ। খবর পেয়ে একপর্যায়ে তার মা তাদেরকে রক্ষায় এগিয়ে গেলে সবুজের হাতে থাকা শাবল দিয়ে আঘাত করলে মাথা ফেটে ঘটনাস্থলে মারা যান মা নুরজাহান বেগম চশমা।
এলাকাবাসী আরো জানায়, হত্যাকান্ডের পর বাড়িতে এসে বেডিংপত্র নিয়ে সবুজ ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়। এ সময় লোকজন তাড়া করলে সে রাস্তা বদলে পালানোর চেষ্টা করে। পরে দরবেশপাড়া দিঘির পাড় থেকে তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে লোকজন।
কুমিল্লার লালমাই থানার উপপরিদর্শক হারুনুর রশিদ জানান, ঘাতক সবুজকে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।