কুমিল্লা ৩০ ভরি স্বর্ণ হাতিয়ে নেয়া জিনের ব্যবসা গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

প্রতারনা করে ৩০ ভরি স্বর্ণ হাতিয়ে নেয়া জীনের বাদশা গ্রুপের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতার তিনজনকে সোমবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলো মোঃ পারভেজ (২২), মোঃ আফজল হোসেন (৩০) ও আরিফ মিয়া। তাদের সবার বাড়ী গাইবান্ধার জেলার গোবিন্দপুর উপজেলার রামনাথপুর গ্রামে। রোববার রাতে তাদের বাড়ী থেকেই গ্রেফতার করা হয়।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। মামলা ও বাদীর বরাত দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর বলেন, গত ৫ সেপ্টেম্বর লালমাই থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলার বাদী ছিলেন কুমিল্লা লালমাই উপজেলার বরল গ্রামের আয়েশা আক্তার।
প্রবাসীর স্ত্রী আয়েশা জিনের বাদশার প্রলোভনে বড়লোক হওয়ার স্বপ্নে দেখে তিনি নিজের এবং স্বজনদের থেকে আনা ৩০ ভরি স্বর্ণ তুলে দেন জিনের বাদশার প্রেরিত প্রতিনিধির কাছে। পরে বুঝতে পারেন তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন। তারপর থানায় মামলা করেন।
পুলিশ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, মামলাটি চলতি সপ্তাহে পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে গোয়েন্দা পুলিশে প্রেরণ করা হয়। মামলার তদন্তের ভার ন্যস্ত হয় আমার উপর। তথ্য প্রযুক্তির সহয়তায় রোববার রাতে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর গ্রাম থেকে তিনজনকে গ্রেফতার করি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানায়, তারা জিনের বাদশা দলের সদস্য। তবে এই কাজের সাথে আরো অনেকে জড়িত। যারা আরো ভয়ংকর প্রতারক। গ্রেফতারকৃতরা জানায়, তারা প্রতারণা করে যে স্বর্ণ নিয়েছেন সেগুলো ওই প্রতারকদের হাতে তুলে দিয়েছেন। ওই মূল পরিকল্পনাকারীরা স্বর্ণগুলো বিক্রি করে দিয়েছেন। সোমবার বিকেলে আদালতে নিলে বিচারক আসামীদের কারাগারে প্রেরণ করার আদেশ দেন।