কুসিক নির্বাচন : নির্বাচনী মৌসুমী হাট

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

স্টাফ রিপোর্টার ।। প্রতীক বরাদ্দের স্থান কুমিল্লা জেলা শিল্পকলা একাডেমীসহ নগরীর বিভিন্ন স্থানে বসেছে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরদের বিভিন্ন প্রতীকের ১৫/২০ ধরনের কোট পিন,গলায় ঝুলানো ব্যাজ ও প্রতীকের হরেক রকমের কার্ড। এক একজন প্রার্থী প্রতীক পেয়ে মিলনায়তন থেকে বের হচ্ছে আর অমনি মৌসুমী এই বিক্রেতারা গগন বিধারী চিৎকার দিয়ে বলছেন, স্যার কি মার্কা পাইছেন কন, সব মার্কা আমাদের এখানে আছে। তাদের হাক ডাকে এক উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে জেলা শিল্পকলা একাডেমী।
মংমনসিংহ থেকে প্রতীক বিক্রি করতে আসা মাহফুজ বলেন, পেপারে ও টিভিতে দেখে খোঁজ নিয়ে জানতে পারছি আজ কুমিল্লায় প্রতীক বরাদ্দ দিবে। তাই ভোরেই চলে এসেছি এখানে।

একেক টা আইটেমের দাম ৭ টাকা থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত আছে। প্রার্থীরা ও সমর্থকরা ধরাধরি করে কেউ কিনছেন আবার কেউ পরে কিনব বলে দাম জেনে চলে যাচ্ছেন।
এ দিকে, যে সকল প্রার্থীদের চাওয়া প্রতীক অন্য প্রার্থী চায়নি ঐ সকল প্রার্থীরা আগেই পোষ্টার ছেপে ফেলেছে। তাই তারা রিটার্নিং অফিসার থেকে প্রতীক পেয়েই নগরীর নিজ নিজ ওয়ার্ডে সাটানো শুরু করেছেন।
মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীর পক্ষে বিকাল ৪টার পর থেকেই শুরু হয়েছে নির্বাচনী জমজমাট প্রচারণা। নগরীর প্রতিটি স্থানেই মেয়র কাউন্সিলর প্রার্থীদের মাইকের আওয়াজ নগরীরবাসীর কাছে অন্যমাত্রা যুক্ত হয়েছে ।
এ দিকে রিটার্নিং অফিসার শাহেদুন্নবি চৌধুরী শুক্রবার পরিস্কার ভাষায় বলেছেন, প্রচারণায় যেন কোন ভাবেই আচরণ বিধি লংঘন না হয়। আচরণবিধি লংঘন করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।