ট্রেনের টিকিট পেতে দ্বিতীয় দিনেও কাউন্টারে উপচেপড়া ভিড়

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট পেতে প্রথম দিনের ন্যায় দ্বিতীয় দিনেও রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে টিকিটপ্রত্যাশীদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে।

শনিবার সকাল ৮টা থেকে ঈদযাত্রার দ্বিতীয় দিনের টিকিট বিক্রি শুরু হয়।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের টিকিট কাউন্টারে দেখা যায়, ভোর থেকে পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও এসেছেন। কেউ কেউ গতকাল শুক্রবার রাত থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন।

টিকিট কিনতে আসা সাব্বির হোসেন বলেন, ঈদের আগে সড়কপথে অনেক বেশি যানজট থাকার আশঙ্কা রয়েছে। এজন্য ট্রেনের টিকিট কিনতে রেলওয়ে স্টেশনের কাউন্টারে এসেছি। অনলাইনে টিকিট কেনার প্রতিযোগিতা বেশি। অনলাইনে প্রক্রিয়া সহজ হলেও প্রতিযোগিতার কারণে টিকিট পাওয়া সহজ নয়। তাই অনলাইনে টিকিট পাওয়ার অনিশ্চয়তা ও যাত্রাপথের ভোগান্তি এড়াতে ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করতে এসেছি।

এদিকে, টিকিট বিক্রির প্রথমদিন (শুক্রবার) কমলাপুর রেলস্টেশন পরিদর্শন করেছেন রেল মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। শনিবার বেলা ১১টায় রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন কমলাপুর স্টেশন পরিদর্শন করবেন বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে, শান্তিপূর্ণভাবে টিকিট বিতরণ নিশ্চিত করতে কাজ করছেন রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনী ও আনসার সদস্যরা। আর কালোবাজারে টিকিট বিক্রি বন্ধ করতে পুলিশের পাশাপাশি তৎপর রয়েছে র‌্যাব।

বাংলাদেশ রেলওয়ে জানায়, শুক্রবার (১ জুলাই) থেকে ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। ১ জুলাই দেওয়া হয় রেলের ৫ জুলাইয়ের ট্রেনের টিকিট, ২ জুলাই দেওয়া হচ্ছে ৬ জুলাইয়ের টিকিট, ৩ জুলাই দেওয়া হবে ৭ জুলাইয়ের ট্রেনের টিকিট, ৪ জুলাই দেওয়া হবে ৮ জুলাইয়ের ট্রেনের টিকিট এবং ৯ জুলাইয়ের ট্রেনের টিকিট দেওয়া হবে ৫ জুলাই।

এছাড়া ৭ জুলাই থেকে ট্রেনের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে। এদিন ১১ জুলাইয়ের টিকিট বিক্রি হবে। ৮ জুলাই ১২ জুলাইয়ের টিকিট, ৯ জুলাই ১৩ জুলাইয়ের টিকিট, ১১ জুলাই ১৪ এবং ১৫ জুলাইয়ের টিকিট বিক্রি হবে। তবে ১১ জুলাই সীমিত কয়েকটি আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করবে। ১২ জুলাই থেকে সব ট্রেন চলাচল করবে।

ঢাকায় ছয়টি স্টেশন ও গাজীপুরের জয়দেবপুর রেলওয়ে স্টেশনে থেকে ঈদের ট্রেনের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশনে সমগ্র উত্তরাঞ্চলগামী আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি হচ্ছে। কমলাপুর শহরতলী প্ল্যাটফর্ম থেকে রাজশাহী ও খুলনাগামী ট্রেনের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। ঢাকা বিমানবন্দর থেকে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। তেজগাঁও রেলওয়ে স্টেশনে ময়মনসিংহ, জামালপুর, দেওয়ানগঞ্জগামী ট্রেনের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে।

এছাড়া ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলওয়ে স্টেশনে পাওয়া যাচ্ছে মোহনগঞ্জগামী মোহনগঞ্জ ও হাওর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট। রাজধানীর ফুলবাড়িয়া রেলস্টেশন থেকে পাওয়া যাচ্ছে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী ট্রেনের টিকিট।

গাজীপুরের জয়দেবপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে পঞ্চগড়ের ঈদ স্পেশাল ট্রেন ছাড়বে।