তিতাসে পীরের আলমারি খুলতেই মিলল আড়াই কোটি টাকা

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

কুমিল্লার তিতাসে মঙ্গলবার (১২ জুলাই) রাতে বিশা পাগলা নামে এক পীরের আলমারি থেকে ২ কোটি ৪৫ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। তিতাস উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুধীন চন্দ্র দাস ও বলরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূর নবী।
চেয়ারম্যান নূর নবী। জানান, ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের মো. আমির আলী ওরফে বিশা পাগলা নামের পীর-ফকির ছিলেন। তিনি গত শুক্রবার মৃত্যুবরণ করেন। এ সময় তার দরবারে থাকা বড় বড় পাতিল নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়ায় নিকটাত্মীয়রা। পরে ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি সমাধান করবেন বলে লাশ দাফন করা হয়।
মঙ্গলবার রাতে বিশা পাগলার ঘর খুলে তার ঘরে থাকা আলমারিতে মোট ২ কোটি ৪৫ লাখ টাকা পাওয়া যায়। জীবিত থাকতে বিশা পাগলা একটি মসজিদ করার স্বপ্ন দেখেছিলেন। উদ্ধার করা ওই টাকা তার নিকটাত্মীয়দের হস্তান্তর করা হয়েছে। তার নিকটাত্মীয়রা যৌথ ব্যাংক অ্যাকাউন্ট করে সেখানে রেখেছেন টাকাগুলো।
তার কোনো স্ত্রী-সন্তান না থাকায়, দুই ভাই জামাল হোসেন এবং কামাল হোসেন এবং তার এক বোনের মেয়ের নামে ওই যৌথ অ্যাকাউন্ট করা হয়েছে। তার স্বপ্নগুলো পূরণ করতে নিকটাত্মীয়দের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন চেয়ারম্যান নূর নবী। ধারণা করা হচ্ছে তার ভক্তদের দান এবং মানতের টাকা এগুলো।
তিতাস উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম মোর্শেদ জানান, আমরা এর আইনি দিকগুলো দেখছি। যাচাই-বাছাই শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এ ঘটনায় জেলা াজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। টাকা গোনার একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলেও, চেয়ারম্যান নূর নবী বলেন, ওই ছবিটা সেখানকার নয়। টাকা গোনা কিংবা হস্তান্তরের সময় কোনো প্রকার ছবি তোলা হয়নি। ছবিটি ভুয়া বলে দাবি করেন ইউপি চেয়ারম্যান।