তিতাস উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেলকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

যুবলীগ নেতা জামাল হোসেন হত্যা
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার যুবলীগ নেতা জামাল হোসেন হত্যা মামলার আসামি ও তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিনুল ইসলাম ওরফে সোহেল শিকদারকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে ২১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাকে আত্মসর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি জামিন পাওয়ার দিনই কীভাবে জামিনাদেশ কুমিল্লায় গেলো তার পুরো ঘটনা তদন্ত করতে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে করা আবেদনের শুনানি নিয়ে বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) আপিল বিভাগের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন চেম্বার জজ আদালত এ আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারওয়ার হোসেন বাপ্পী।

এর আগে গত ৩০ এপ্রিল রাত ৮টার পর কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরিপুর পশ্চিম বাজার বাইতুন নূর জামে মসজিদ এলাকার সুমাইয়া কনফেকশনারির সামনে বোরকা পরা তিন দুর্বৃত্ত গুলি করে জামাল হোসেনকে হত্যা করে।

যুবলীগ নেতা হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ২ মে রাতে নিহত জামালের স্ত্রী পপি আক্তার বাদী হয়ে দাউদকান্দি থানায় ৯ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা সাত থেকে আটজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

গত ৬ মে তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিনুল ইসলাম ওরফে সোহেল শিকদারকে গ্রেফতার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

গত ৩ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়ে কারামুক্তি পান সোহেল। পরে রাষ্ট্রপক্ষ জামিন স্থগিত ও আত্মসমর্পণের নির্দেশনা চেয়ে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতে আবেদন করে।