দেশের শান্তি অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনাকে আবারো ক্ষমতায় আনতে হবে- এমপি বাহার

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করেছে এদেশের স্বাধীনতা বিরোধীরা। সেই তারাই আবার ২০০৪ সালের আজকের দিনে গ্রেনেড হামলা করে আমাদের প্রানের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপর। সেদিনের একের পর এক গ্রেনেড হামলা ও গুলি বর্ষণের ন্যক্কারজনক ঘটনায় আমাদের আইভি রহমানসহ ২৩ জন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়। শরীরের গ্রেনেডের ¯িপ্রন্টার নিয়ে এখনো দূর্ষহ জীবন যাপন করছেন সহস্রাধিক নেতাকর্মী। আল্লাহর অশেষ রহমতে সেদিন আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রানে বেঁচেছিলেন। সেই স্বাধীনতা বিরোধীরা এখনো সক্রিয়। শান্তির এই দেশটাকে যেন অশান্তির আগুনে না পুড়াতে পারে, দে,ের শান্তি অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো ক্ষমতায় আনতে হবে। আমরা গ্রেনেড হামলাকারী ও তাদের দোসরদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই। কারণ আমরা আওয়ামীলীগের কর্মীরাই যুগে যুগে কালে কালে জীবন দিয়ে দেশকে অরাজকতার হাত থেকে রক্ষা করেছি।
রোববার বিকাল চারটায় কুমিল্লা টাউনহলে মহানগর আওয়ামীলীগ আয়োজিত ২১ অগাষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে আযোজিত বিক্ষাভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সদর আসনের সংসদ সদস্য আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার এসব কথা বলেন।
মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এড.জহিরুল ইসলাম সেলিম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর, যুগ্ম সম্পাদক আতিক উল্লাহ খোকন , সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী আবুল বাশার, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড.আমিনুল ইসলাম টুটুল, ভাইস চেয়ারম্যান তারিকুর রহমান জুয়েল, এড. হোসনেয়ারা বকুল,
সঞ্চালনায় ছিলেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহমেদ নিয়াজ পাবেল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিন্টু, সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান পিয়াস, মহানগর ছাত্রলীগের আহবায়ক আবদুল আজিজ সিহানুক অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে সদর আসনের সংসদ সদস্য আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহারের নেতৃত্বে একটি বিশাল বিক্ষোভ মিছিল নগরীর টাউন হল থেকে শুরু হয়। পরে নগরীর প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে আবারো টাউন হলে এসে শেষ হয়।