নাঙ্গলকোটে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি : কুমিল্লার নাঙ্গলকোট পৌর সভার মান্দ্রা গ্রামে আলমগীর হোসেন (৩৮) নামে সৌদি প্রবাসী এক যুবকের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ। বুধবার সকাল ৮টার দিকে বাড়ীর লোকজন তাকে ডাকা ডাকি করে দরজা না খোলায় পরে দরজা ভেঙ্গে তাকে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলতে দেখে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। আলমগীর হোসেন ওই গ্রামের মৃত মমতাজ উদ্দিনের ছেলে। আলগীর গত ৩মাস পূর্বে সৌদি আরব থেকে ছুটিতে আসেন। আলমগীরের ৭ বছর বয়সী অরিন ও ২ বছর বয়সী আলিফা নামে দুটি শিশু কন্যা সন্তান রয়েছে।
আলমগীরের স্ত্রী কুলসুম আক্তার বলেন, আলমগীর হোসেন গত কয়েক দিন যাবৎ মানসিক টেনশনে ভূগছিলেন। সে গত কিছু দিন পূর্বে ৬ শতক সম্পত্তি পৌরসভার নতুন হরিপুর গ্রামের লোকমানের কাছে ৫৫ লাখ টাকা বিক্রি করে। ওই টাকার অধিকাংশ টাকা তার বন্ধু পাশ্ববর্তী অশ্বদিয়া গ্রামের মরহুম সাদেক হোসেন চেয়ারম্যানের ছোট ছেলে রুবেল হোসেনকে ধার দেয়। এ টাকা গুলো নিয়ে সে খুব চিন্তিত ছিলো।
নাঙ্গলকোট থানা অফিসার ইনচার্জ ফারুক হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।