পাঠাগার যেন গুদামঘর

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

পাবনায় অধিকাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে লাইব্রেরি নেই। তবে কাগজ কলমে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে লাইব্রেরি আছে। আবার অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে লাইব্রেরি আছে কিন্তু সেগুলো বছরের পর বছর বন্ধ রয়েছে। অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা জানে না তাদের প্রতিষ্ঠানে লাইব্রেরি আছে। বেসরকারি মাধ্যমিক স্কুলগুলোতে লাইব্রেরির শিক্ষকরা নিয়মিত ক্লাস নিচ্ছেন। অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে লাইব্রেরি ব্যবহার করা হচ্ছে পাঠ্যপুস্তকের গুদাম হিসাবে।

জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, জেলায় নিুমাধ্যমিক, মাধ্যমিক, সরকারি স্কুল অ্যান্ড কলেজসহ মোট প্রতিষ্ঠান ৩২৮টি। স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি, দাখিল, আলিম, ফাজিল, কামিলসহ মোট মাদ্রাসার সংখ্যা ২৬১ এবং এইচএসসি পর্যায়ে কলেজ ১৫, স্নাতক বা তদূর্ধ্ব সরকারি ১১, বেসরকারি ৩৫, বিএম বা কারিগরি কলেজ ২৯টিসহ মোট কলেজ ৯০ এবং জেলায় মোট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৬৭১টি। ১৮৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত পাবনা শহরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জিসিআই (গোপাল চন্দ্র ইন্সটিটিউট) সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা যায়, তালাবদ্ধ একটি জরাজীর্ণ কক্ষ (কোন লাইব্রেরির নাম নেই)। তালা খুলে দেখা যায় কক্ষের মেঝেতে স্কুলের পাঠ্যপুস্তক গাদাগাদি করে রাখা হয়েছে। ধুলাবালুমাখা কয়েকটি পুরোনো আলমিরায় কিছু বই আছে, এসব বই শতবর্ষের আগের। গ্রন্থাগারিকের বসার জন্য রয়েছে ধুলাবালুযুক্ত চেয়ার টেবিল।

পুরো কক্ষটি ময়লা আবর্জনাযুক্ত, অপরিষ্কার। শিক্ষার্থীদের পড়ার জন্য কোনো বেঞ্চ বা টেবিল নেই। এটিই নাকি একসময় লাইব্রেরি হিসাবে ব্যবহার করা হতো। কিন্তু কয়েক বছর ধরে কক্ষটি বন্ধ রয়েছে। শিক্ষার্থীরাও জানে না তাদের লাইব্রেরি আছে। গ্রন্থাগারিক সালাতুজ্জোহা তুষার বলেন, লাইব্রেরির বা বইয়ের জন্য কোনো বাজেট নেই। শিক্ষার্থীরা এখানে আসে না। তিনি স্কুলের রুটিন অনুযায়ী সপ্তাহে ২৬টি করে ক্লাস নেন। পাবনা সদর উপজেলার খোদেজা হারুন উচ্চবিদ্যালয়ে দেখা যায়, প্রধান শিক্ষকের কক্ষে ছোট্ট একটি জাল কেবিনেটে হাতেগোনা কয়েকটি বই আছে। টিনশেড একটি ঘরের একটি কক্ষে স্কুলের পাঠ্যপুস্তক গাদাগাদি করে রাখা হয়েছে। কোনো লাইব্রেরি নেই। পাবনা জিলা স্কুলে একটি বড় লাইব্রেরি আছে। কিন্তু সেটি ৩-৪ বছর ধরে বন্ধ। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে সম্প্রতি স্ট্যান্ড রিলিজ করায় অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল জাব্বার এ বিষয়ে বলেন, তার অফিসে জেলার সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের লাইব্রেরির চিত্র বা সংখ্যা নেই।