পুলিশের ওপর হামলা, পরিকল্পনা ও উসকানির অভিযোগে গ্রেপ্তার দেখানো হলো ফখরুল-আব্বাসকে

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

পুলিশের ওপর হামলা, পরিকল্পনা ও উসকানির অভিযোগে করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বিএনপির মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে। 

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে শুক্রবার রাত তিনটার দিকে তাদের বাসা থেকে ডিবি পুলিশ তুলে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্যরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। দলটির মিডিয়া সেলের ফেসবুক পেজে এক বার্তায় বলা হয়েছে,বিএনপির মহাসচিব মির্জা আলমগীর-এর  কন্যা অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী ড. শামারুহ মির্জা, বিএনপির মিডিয়া সেল-এর আহ্বায়ক জহির উদ্দিন স্বপনকে ফোনে এই সংবাদ জানিয়েছেন।

এদিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে আটকের পর তার স্ত্রী রাহাত আরা বেগম সাংবাদিকদের জানান, তিনি (ফখরুল) গভীর রাতে বাসায় আসেন। শরীর ক্লান্ত থাকায় ওষুধ খেয়ে সাথে সাথে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত ৩টার দিকে ৪ জন লোক ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে বাসায় আসে। দরজা খুলে দিয়ে তাদের বসতে দেয়া হয়। তখন পুলিশ সদস্যদের মির্জা ফখরুল সাহেব জিজ্ঞেস করেন, আপনারা কেন আসছেন। জবাবে পুলিশ সদস্যরা বলেন, রাতে নাকি মামলা হয়েছে। কোর্টের ওয়ারেন্ট আছে। তারা তাকে নিয়ে যাবেন।

রাত সাড়ে তিনটার দিকে উনাকে (ফখরুল) নিয়ে তারা বের হয়ে যান। পরে জানতে পারি- ডিবি পুলিশের একটি দল ৪-৫টি গাড়ি নিয়ে সন্ধ্যা রাত থেকেই আমাদের বাসার আশপাশে অবস্থান নিয়েছিল। তারা আমার বাসার সিকিউরিটি গার্ডের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছে। দরজা খুলতে দেরি করায় চড় থাপ্পড় মেরেছে।

 

ওদিকে প্রায় একই সময়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে শাজাহানপুরের বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানান শায়রুল কবির খান।

এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে  পুলিশের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে তারা ডিবি অফিসে আছেন বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।