বিএনপির সমাবেশের আগে গায়েবি ধর্মঘট হয়, যার সাথে শ্রমিকদের সম্পর্ক নেই

কুমিল্লায় সংবাদ সম্মেলনে শিমুল বিশ্বাস
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ সপ্তাহ আগে

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস বলেছেন, বিএনপির গণ সমাবেশের আগে যে ধর্মঘট করা হচ্ছে, তা গায়েবি ধর্মঘট। সমাবেশের আগে সরকারের কিছু চিহ্নিত লোকজন দিয়ে খবরের কাগজে ঘোষনা দিয়ে দেয়, আর পুলিশ দিয়ে গোন্ডা দিয়ে ধর্মঘট পালন করেন।
এই ধর্মঘটের সঙ্গে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশন এমনকি সাধারণ শ্রমিক মালিকদের কোনো ধরণের সম্পর্ক নেই। সরকারের নির্দেশে অতি উৎসাহী প্রশাসন ভয় ভীতি দেখিয়ে পরিবহন ধর্মঘট করেছে।
মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় কুমিল্লা জেলা বিএনপির আহবায়ক নগরীর ধর্মসাগরপাড়স্থ হাজী আমিন উর রশীদ ইয়াছিনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।
শিমুল বিশ্বাস বলেন, সড়ক পরিবহন সেক্টরের মালিক-শ্রমিক কোন পক্ষই এই রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রনোদিত ধর্মঘট চায় না, সবাই ধর্মঘটের বিরুদ্ধে। কিন্তু সরকারের চাপের মুখে, ক্ষমতাসীনদের পেশীশক্তি আর দমণ-পীড়ণের কাছে নিরূপায়। কোনো কোনো এলাকায় এমন ঘটনাও ঘটেছে যে, জীবন জিবীকার তাগিদে সড়কে গাড়ি বের করলে সরকার দলীয় ক্যাডারদের দ্বারা হামলার শিকার হয়েছেন অনেক পরিবহণ শ্রমিক। সরকার পরিবহন সংগঠনের নাম ব্যবহার করে শ্রমিক সংগঠনগুলোকে জনসাধারণের মাঝে প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলছে।
শিমুল বিশ্বাস আরো বলেন, ‘বিভিন্ন সভা-সমাবেশ, সংবাদ সম্মেলন, এমনকি জাতীয় সংসদেও বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশের আগে পরিবহণ ধর্মঘট নিয়ে আমাকে (শিমুল বিশ্বাস) আক্রমণ করেছেন মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতারা। সংসদে দাঁড়িয়ে ধর্মঘট প্রসঙ্গে আমার নাম জড়িয়ে অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। মোবাইল ফোনে এরকম একটি ভিডিও দেখান তিনি।
সেতুমন্ত্রীর বক্তব্য দায়িত্ব-জ্ঞানহীন এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে উল্লেখ করেন শিমুল বিশ্বাস।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় ত্রান ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক ও কুমিল্লা দক্ষিন জেলা বিএনপির আহবায়ক হাজী আমিন উর রশিদ ইয়াছিন, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক হুমায়ূন কবির খান, বিএনপির জাতীয় নির্বাহি কমিটির সহ-শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মিয়া মিজানুর রহমান, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, জেলা দক্ষিণ বিএনপির সিনিয়র নেতা আবদুর রউফ চৌধুরী ফারুক, কুমিল্লা মহানগর বিএনপির আহবায়ক উৎবাতুল বারী আবু, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ জসিম উদ্দিন ভিপি, আদর্শ সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রেজাউল কাইয়ুম, জেলা দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি আশিকুর রহমান মাহমুদ ওয়াসিম ভিপি, কুমিল্লা দক্ষিন জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি আবদুর রহমান, কুমিল্লা উত্তর জেলা শ্রমিক দলের সভাপতিসহ অঙ্গ-সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।