বুড়িচংয়ে স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে পুলিশ কন্সটেবলের বাড়ীতে নারীর অনশন

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

স্টাফ রিপোর্টার ।। স্বামীর স্বীকৃতির দাবীতে পুলিশ কন্সটেবলের বাড়ীতে অনশন করেছে এক নারী। শুক্রবার সকালে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নারায়নসার গ্রামে সিআইডি পুলিশের কনস্টেবল সোহেল রানার বাড়ীতে ওই নারী অনশনে বসেন।

অভিযুক্ত সোহেল রানা বরগুনা জেলা সিআইডি পুলিশে কর্মরত আছে বলে জানান ওই নারী।

ওই নারী অভিযোগ করে বলেন, ১০ বছর পূর্বে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে পড়ার সময় সোহেল রানার সাথে পরিচয় হয়। এরপর থেকে তাদের যোগাযোগ ছিলো। তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলতে থাকে। ১ বছর পূর্বে ঢাকা রামপুরা কাজী অফিসে ২ লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ে করেন তারা।

বিয়ের সময় সোহেল রানা জয়পুরহাটে চাকুরী করতো, এসময় জয়পুরহাটে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বসবাস শুরু করেন, পরে ঢাকা ও সর্বশেষ দুই মাস পূর্বে বরগুনা এলাকায় একটি বাসা ভাড়া নেয়।

গত ২৬ এপ্রিল সোহেল রানা স্ত্রীকে রেখে ভাড়া বাসা থেকে বের হয়ে এসে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। এরপর থেকে সোহেল রানার সাথে যোগাযোগ করতে পারছিলনা ওই নারী।

কোন উপায় না দেখে সে শুক্রবার সকালে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবীতে সোহেল রানার গ্রামের বাড়ীতে এসে অবস্থান নেয়।

ওই নারী আরো জানান, ইতোমধ্যে সোহেল রানার আরো ৮ টি বিয়ের খবর তার কাছে এসেছে। এই বাড়ীতে এসে জানতে পারেন সোহেল রানার প্রথম স্ত্রী এই বাড়ীতে থাকেন, প্রথম স্ত্রীর একটি কন্যা সন্তান রয়েছে যার বয়স ১১ বছর।