ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঘুষি মেরে চাচার দাঁত ফেলে দিলেন ভাতিজারা

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জমি নিয়ে দুই ভাইয়ের বিরোধের জেরে মুখলেছুর রহমান (৬০) নামে এক বৃদ্ধের ঘুষি দিয়ে ৪ দাঁত ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার ভাতিজাদের বিরুদ্ধে। শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) রাত ১১টার দিকে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে হাসপাতালে যায় সদর মডেল থানা পুলিশ। এ ঘটনায় ওই বৃদ্ধের ৪টি দাঁত পড়লেও একটি দাঁত খুঁজে পাওয়া যায়নি।

সন্ধ্যায় তিনি জেলা শহরের বাসায় ফিরছিলেন। এসময় পুনরায় তাকে তার দুই ভাতিজা ওবায়দুল ও ইমু মারধর করেন। আহত অবস্থায় তিনি জেলা শহরের বাসায় আসেন। তাকে আহত অবস্থায় পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নিতে বলেন।

রাতে তিনি হাসপাতালে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে এক্স-রে করিয়ে আনতে পরামর্শ দেন। মুখলেছুর রহমান বেসরকারি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এক্স-রে করিয়ে রিপোর্ট নিয়ে হাসপাতালে ঢোকার সময় ভাতিজা ওবায়দুল, ইমু ও তাদের আত্মীয় সাহেদ তাকে আবারো এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। এ সময় ঘুষিতে তার ৪টি দাঁত পড়ে যায়। পরে তিনি হাসপাতালে ঢুকে আত্মরক্ষা করেন।

আহত মুখলেছুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, আমার হার্টের সমস্যার কারণে বাইপাস করা হয়েছে। তাছাড়া ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ। ভাবতে পারিনি ভাতিজারা আমাকে এভাবে মারধর করবে। আমি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরানুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়। এই ঘটনায় এখনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।