মনোহরগঞ্জে খাল দখল করে মার্কেট নির্মাণ পানি বন্দী ২০০ পরিবার

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাওরা গ্রামে স্থানীয় প্রভাবশালী কর্তৃক জলিপুর খাল দখল করে মার্কেট নির্মাণ করায় পানি নিষ্কাশনের জায়গা না থাকায় ৬ মাস ধরে পানি বন্দী হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে স্থানীয় ২০০টি পরিবার।
বৃষ্টি এবং খাল দখল হওয়ায় পানি নিষ্কাশনের জায়গা না থাকার কারণেই পানিবন্দি হয়েছে বলে দাবি করছেন এলাকাবাসী। সরেজমিনে গিয়ে এ চিত্র দেখা যায়।
সরজমিনে দেখা যায়, প্রভাবশালীরা খাল ভরাট করে নির্মাণ করেছে মার্কেট আর দালান বাড়ি ।মূলত এসব মার্কেট ভবনের কারণে পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানে ওই এলাকায় হাঁটু সমান পানি রয়েছে।
ভুক্তভোগী মাঈন উদ্দিন বলেন, বাড়ি থেকে বের হওয়া যাচ্ছে না, বাচ্চারা স্কুলে যাওয়ার সময় জামাকাপড়, বই কাগজপত্র ভিজে নষ্ট হয়ে যায়। আরো কতদিন থাকতে হবে বুঝতে পারছি না।
একটু বৃষ্টি হলেই ঘরের ভিতর পানি ডুকে পড়ে। ঘরের চুলা পর্যন্ত পানির নিচে থাকে । গত কয়েকদিন হোটেল থেকে এনে খাবার খেতে হয়েছে আমাদের।
স্থানীয় বাসিন্দা চাষি বিপ্লব বলেন, ‘বৃষ্টির পানি নেমে যেতে না পারায় এমন দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। আগে বাড়ির পাশের খালে পানি নেমে যেত।
কিন্তু এখন বাড়ি, মার্কেট নির্মাণ হওয়াতে খাল ভরাট হয়ে যায়, ফলে বৃষ্টির পানি কোথাও যাওয়ার সুযোগ নেই।’
মরিয়ম বেগম বলেন, ‘আমার মেয়ে হাওরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী, হাঁটু পানিতে কাপড় ভিজে যাওয়ার ফলে স্কুলে যাওয়ার সময় আলাদা একটি ড্রেস নিয়ে যেতে হয় তাঁকে। মাঝে মধ্যে বই খাতা নিয়ে পানিতে ভিজে বাড়ি ফিরে।
বাইশগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন বলেন, খাল দখল করে রাখার সুযোগ নেই। আমরা এটা অবমুক্ত করব ইনশাআল্লাহ।
মনোহরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উজালা রানী চাকমা বলেন, খাল ভরাটের বিষয় তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি।