মহাসড়কে পিকআপ ভ্যান আড়াআড়ি ভাবে ফেলে ডাকাতি

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

স্টাফ রিপোর্টার ।। শুক্রবার রাত থেকে সোশাল মিডিয়ায় ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার অংশে গাড়িতে ডাকাতির ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। সেখানে দেখা যায়, মহাসড়কে পিকআপ ভ্যান আড়াআড়ি ফেলে রেখে ডাকাতদল দুর্ধর্ষ ডাকাতিতে মেতে উঠে। মুখোশ পরিহিত ডাকাত দলের কাঁধে ব্যাগ এবং তাদের মারমূখী আচরণ ছিলো ভয়াবহ।
খোজ নিয়ে জানা যায়, গেলো বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি ব্রীজের পশ্চিমে এ ঘটনা ঘটে। তবে কুমিল্লা জেলার অংশে নয়। ডাকাতির ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকা চ্ট্গ্রাম মহাসড়কের মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া থানার ভবেরচর এলাকায়।
সেদিন রাতের ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন সরকার।
ঘটনার বর্ণনা করে লিটন সরকার বলেন, বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটা তিনটার দিকে তিনি একটি প্রাইভেটকারে করে ঢাকা থেকে কুমিল্লা ফিরছিলেন। সে সময় মহাসড়কের উপরে ছোট একটা পিকআপ ভ্যান আড়াআড়ি করে রেখে এমন একটা ভাব করেছিলো যেনো গাড়িটা ডানে বায়ে ঘুরবে। আমার প্রাইভেটকারে আমরা চারজন ছিলাম। চালক সড়কের মাঝে পিকআপ ভ্যান দেখে গাড়ির গতি কমিয়ে দেয়। এ সময় কারো মুখে মাস্ক, কারো মুখে মুখোশ ১০-১৫ জনের একটি দল আমাদের প্রাইভেটকারের সামনে এসে এলোপাথারী কোপাতে লাগলো। কেউ এসে ইট দিয়ে গাড়ির জানালার কাঁচ ভাঙ্গছিলো। আমরা আহত হয়েছি। আমার চালক ইমাম আহমেদের মাথায় কোপ লাগ্ েচারটা সেলাই দিতে হয়। আমার কর্মী শাখাওয়াৎ হোসেন ও মাসুম বিল্লার হাত কেটে যায়। ডাকাতদল আমাদের সাথে থাকা মোবাইল মানিব্যাগসহ সব কিছু নিয়ে যায়। হিসেব করে দেখলাম সব মিলিয়ে অন্তত সাড়ে ৪ লাখ টাকার জিনিসপত্র ডাকাতদল লুট করে নিয়ে যায়। ওই দিন যতটুকু খেয়াল করলাম ডাকাতদল, মাইক্রো প্রাইভেটকারকে টার্গেট করে ডাকাতি করছে। বাসগুলোকে ছেড়ে দিচ্ছে।
ঘটনার পর আমরা পাশেই গজারিয়া থানায় ঘটনা জানাই। গজারিয়া থানার উপপরিপরিদর্শক কামাল হোসেনকে জানাই।তিনি ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে আসেন। আমাদেরকে আশ্বস্থ করলেন ডাকাতদলকে গ্রেফতার করবেন।
বিষয়টি নিয়ে দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জুহুরুল হক বলে, ঘটনাটি ঘটেছে মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া ভবেরচর। ওই থানার ওসি বিষয়টি ভালো বলতে পারবেন।
গজারিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রইছ উদ্দিন জানান, এ বিষয়ে কেউ লিখিত অভিযোগ করেন নি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডাকাতির ঘটনার ভিডিও ভাইরাল এমন প্রশ্নে পুলিশ কর্মকর্তা রইছ উদ্দিন বলেন এটা নিয়ে আমরা কাজ করছি। ভুক্তভুড়িগর লিখিত অভিযোগটা আমাদের দরকার। তবে কেউ অভিযোগ করেন নি।