মহাসড়কে মাইক্রোবাসে তুলে ছিনতাই

গাড়ীসহ এক ছিনতাইকারী গ্রেফতার
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যাত্রী হিসেবে মাইক্রোবাসে তুলে টাকা পয়সা ও ডেবিট কার্ড ছিনিয়ে নিয়ে এক কৃষি কর্মকর্তা ও এক ডাক্তারকে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার কোরপাই এলাকায় ফেলে যাওয়ার ঘটনায় ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত মাইক্রোবাসসহ এক ছিনতাইকারিকে গ্রেফতার করেছে বুড়িচং থানা পুলিশ।
গ্রেফতারকৃত আসামীর নাম মোঃ সুমন হাওলাদার। শনিবার রাতে ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার মাদারখোলা গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে বুড়িচং থানা পুলিশ।
দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জাবেদ উল ইসলাম জানান, কুমিল্লার নাঙ্গলকোর্ট উপজেলার পুটিজলা গ্রামে কৃষি কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন চৌধূরী ও ডাক্তার মোঃ আমানুল ইসলাম গত ১২ জানুয়ারী মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া ইঞ্জিনিয়ারিং স্টাফ কলেজে ট্রেনিং শেষে বিকেলে ৫ টায় কুমিল্লা আসার জন্য গাড়ির অপেক্ষায় থাকে। এসময় তাদের সামনে একটি মাইক্রোবাস দাঁড়ালে ১০০ টাকা জনপ্রতি ভাড়ায় কুমিল্লা আসার জন্য উঠে। মাইক্রোবাসে আগেই চালকসহ আরও ৪জন ছিলো।
গাড়িটি মহাসড়কের চান্দিনা এলাকায় আসলে পূর্ব থেকে গাড়িতে থাকা ৪ ছিনতাইকারী তাদের অস্ত্রের মুখে হাত-পা বেঁধে মারধর করতে থাকে। এসময় তাদের মোবাইল ফোন, নগদ টাকা ডেবিট কার্ড ছিনিয়ে নিয়ে মহাসড়কের পাশে হাত-পা বাধা অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
পরে চলাচলরত লোকজন তাদের উদ্ধার করে। এদের একজন শাহাদাৎ হোসেন একটি মোবাইল ফোন দিয়ে তার একাউন্ড চেক করে দেখতে পান, একাউন্ড থেকে ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে ৬০ হাজার টাকা উত্তোলন করেছে ছিনতাইকারীরা। এ ঘটনায় অজ্ঞাত ছিনতাইকারীদের নামে বুড়িচং থানায় একটি মামলা দায়ের করেন তিনি।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই মোঃ রুহুল আমিন জানান, প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে এক ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত মাইক্রোবাসটি জব্দ করা হয়েছে।
গ্রেফতারকৃত আসামীকে রোববার দুপুরে কুমিল্লা আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।