মেঘনায় মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষ, নিহত ১

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

লক্ষ্মীপুর  প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ ধরার সময় জেলে ও নৌ পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আমীর হোসেন নামে এক জেলে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো ৪ পুলিশসহ ৫ জন আহত হন।

রোববার ভোর রাতে সদর উপজেলার মজু চৌধুরীর হাট এলাকার মেঘনা নদীতে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় ১০ জেলেকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত আমীর হোসেন ভোলা সদরের কুতুবপুরা মতলব রাড়ির ছেলে।

নৌ পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, জাটকা সংরক্ষণে মেঘনায় দুই মাস মাছ ধরা বন্ধের সরকারি নিষেধাজ্ঞা চলছে। নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে রোববার রাতে নৌ পুলিশ নদীতে অভিযানে নামে। ভোর রাতে টহল পুলিশ ঘটনাস্থল এলাকায় পৌছালে ৫-৬ টি মাছ ধরার জেলে নৌকা তাদের ঘেরাও করে ফেলে।  এ সময় ৫০-৬০ জন জেলে পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় ইট-পাটকেল (জালের কাঠি) নিক্ষেপ করে পুলিশের ওপর। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ গুলি চালায়। এতে আমীর হোসেন নামে এক জেলে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন। এ ঘটনায় আহত হন পুলিশ সদস্য জহিরুল ইসলাম, মহসীন, আনোয়ার, মোবারক ও পুলিশের স্পিড বোর্ডের চালকসহ ৫ জন। পরে আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। অবস্থার অবনতিতে গুলিবিদ্ধ জেলেকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পর সকালে তিনি মারা যান বলে জানায় পুলিশ।

এ ব্যাপারে নৌ পুলিশের উপ-পরিদর্শক কামাল হোসেন ও চাঁদপুর অঞ্চলের এসপি কামরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।