লাইমাইয়ে যে কারনে ১০ মিনিট বিলম্বে ভোটগ্রহণ শুরু

কুমিল্লা জেলা পরিষদ নির্বাচন
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

আবদুর রহমান ।।

কুমিল্লা জেলা  পরিষদ নির্বাচনে কুমিল্লার লাইমাই উপজেলায় ১০ মিনিট বিলম্বে ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) সময় নির্ধারণ করা থাকায় এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান প্রিজাইডিং অফিসার  ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো.জোনায়েদ কবির খান।
সারাদেশের মতো কুমিল্লা জেলায়ও সোমবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

প্রিজাইডিং কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির খান জানান, এ উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১১৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৯০ জন এবং নারী ভোটার ২৮ জন।

বিলম্বে ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার প্রসঙ্গে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা  বলেন, আমাদের এখানে দু’টি ইভিএমের মাধ্যমে দু’টি বুথে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচন কমিশন থেকে ইভিএমে ভোটগ্রহণ শুরুর সময় নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। যার কারণে আমরা চাইলেও ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু করতে পারিনি। এর মধ্যে একটি ইভিএমে ৬ মিনিট ৬ সেকেন্ড এবং আরেকটি ইভিএমে ৬ মিনিট ১০ সেকেন্ড সময় পেছানো ছিলো। তবে এই সময়টি ভোটগ্রহণের শেষ সময়ে বাড়তি হিসেবে পাবেন ভোটারটা। আর আশা করছি শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ শেষ হবে।

সরেজমিনে সকাল ৯টা ১২ মিনিটে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলা পরিষদের অস্থায়ী কার্যালয়ের চারতলার একটি কক্ষে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। পরিষদের মূলগেটে অবস্থান নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। তারা ভোটারদের যাচাই করে ভেতরে  প্রবেশ করতে দিচ্ছেন।

লালমাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আইয়ূব বলেন, ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা প্রস্তুত রয়েছে।

প্রিজাইডিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে জানা গেছে, কুমিল্লা জেলা পরিষদ নির্বাচনে লালমাই উপজেলার সদস্য পদে মোট তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এঁরা হলেন- ঘুড়ি প্রতীকের মো.