সাংবাদিক নাঈম হত্যা মামলার প্রধান আসামি রাজু বন্দুক যুদ্ধে নিহত

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

স্টাফ রিপোর্টার ।। কুমিল্লার বুড়িচংয়ে সাংবাদিক মহিউদ্দিন সরকার নাঈম হত্যার মামলার প্রধান আসামি মো.রাজু (৩৫)র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। রবিবার (১৬ এপ্রিল) দিবাগত রাত ২ টায় জেলার আদর্শ সদর উপজেলার পাঁচথুবী ইউনিয়নের সীমান্তবতী গোলাবাড়ি এলাকায় ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে সে নিহত হয়।
র‌্যাবের-১১ ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানি-২ কুমিল্লার অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ সাকিব হোসেন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল গোলাবাড়ি এলাকায় যায়। তখন র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করে সন্ত্রাসীরা। একই সঙ্গে হামলা চালানো হয়। এ সময় র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে ও সরকারি সম্পদ রক্ষায় পাল্টা গুলি করে।
তিনি আরো বলেন, ওই বন্দুকযুদ্ধের পর ঘটনাস্থলে এক ব্যক্তিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। এ সময় সেখান থেকে একটি পিস্তল ও গুলি উদ্ধার করা হয়। দ্রুত তাঁকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।এ ঘটনায় র‌্যাবের এক সদস্য আহত হয়েছেন।
র‌্যাবের বচন্ধুক যুদ্ধে নিহত মো.রাজু কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার বিষনুপুর গ্রামের সাদেক মিয়ার ছেলে।পরিবার নিয়ে তিনি ময়নামতি সাহেব বাজার এলাকার ১৫ নম্বর গেটে থাকতেন। তাঁর সেনানিবাস এলাকায় মোটরসাইকেলের ব্যবসা পাশাপাশি মাদক কারবার ও সীমান্ত দিয়ে কাপড় আনা নেওয়ার ব্যবসাও রয়েছে।
উল্লেখ্য, বুধবার (১৩ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলায় ভারতীয় সীমান্তে সাংবাদিক মহিউদ্দিন সরকারকে গুলি করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে তাকে স্থানীয় দুই যুবক বিজিবির সহায়তায় উদ্ধার করে বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
পরে এ ঘটনায় নিহত সাংবাদিক মহিউদ্দিন সরকার নাঈমের মা নাজমা আক্তার বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার রাজুসহ ৮জনের বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায়একটি হত্যা মামলাটি দায়ের করেন।