সৌদির সঙ্গে মিল রেখে দেশের যেসব জেলায় আজ ঈদ

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

সৌদি আরবে শনিবার পবিত্র ঈদুল আজহা উদ্‌যাপিত হবে। আরব বিশ্বের বেশির ভাগ দেশে ৯ জুলাই পবিত্র ঈদুল আজহা উদ্‌যাপিত হবে। তবে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে তা ১০ জুলাই উদ্‌যাপিত হবে। বাংলাদেশে পবিত্র ঈদুল আজহা কবে উদ্‌যাপিত হবে রোববার।

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে একদিন আগেই আজ দেশের কয়েকটি স্থানে নামাজ ও পশু কুরবানির মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। যারা ঈদ উদযাপন করবেন তারা চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার সিলসিলিয়া আলীয়া জাহাঁগিরিয়া (র.) পীরের অনুসারী।

চট্টগ্রামের ৮ উপজেলার ৫০টি গ্রামে আজ ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। এ ছাড়া দক্ষিণ চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার কালীপুর, চাম্বল, শেখেরখীল, পুঁইছড়ি, ডোংরা এবং লোহাগাড়ার ধর্মপুর ও কলাউজানেও ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে মীর্জারখীল দরবার শরিফের অনুসারীরা সকালে ঈদের নামাজ আদায় করবেন ও পশু কুরবানি দেবেন।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ২০০ বছর আগে জাহাঁগিরিয়া (র.) পীর সাহেব তার মুরিদদের নির্দেশ দিয়েছিলেন সৌদি আরবে যেদিন চাঁদ দেখা যাবে পরদিন থেকেই বিশ্বের সবখানে রোজা পালন শুরু হবে। একই নিয়মে ঈদুল ফিতর এবং ঈদুল আজহাও পালন করতে হবে। এরপর থেকেই চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করে সারা দেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা মির্জারখীল দরবার শরিফের অনুসারীরা সৌদি আরবের রীতি অনুসারে রোজা ও দুটি ঈদ উদযাপন করে আসছেন।

বরিশাল মহানগরসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় প্রায় ৫ হাজার পরিবার আজ ঈদুল আজহা উদযাপন করবে। এজন্য অর্ধশতাধিক মসজিদে ঈদুল আজহার জামাতের যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

বাবুগঞ্জের খানপুরা, কেদারপুর, মাধবপাশাসহ ৫-৬টি গ্রামের এক হাজারের বেশি পরিবার আজ ঈদ উদযাপন করবে। এ ছাড়া জেলার মুলাদী, হিজলা, মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলায় এবং সদর উপজেলার চন্দ্রমোহন, পতাং, লাহারহাট গ্রামের দুই হাজার মানুষ আজ ঈদুল আজহা উদযাপন করবেন।

পটুয়াখালীর বিভিন্ন উপজেলার প্রায় ২০ গ্রামের মানুষ আজ ঈদুল আজহা উদযাপন করবেন।

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার শেখর ও রুপাপাত ইউপিরর ১০টি গ্রামের মানুষ আজ ঈদুল আজহার উদযাপন করবে। উপজেলার মাইটকোমরা গ্রামের বাসিন্দা কাজী সোহান জানান, মাইটকুমড়া জামে মসজিদে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত হবে।

চাঁদপুরের অর্ধশত গ্রামে আজ ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। সৌদি আরব বিশ্বের সঙ্গে মিল রেখে হাজীগঞ্জের বড়কুল পশ্চিম ইউপির সাদ্রার হামিদিয়া ফাজিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ মরহুম মাওলানা আবু ইছহাক ১৯২৮ সালে এ প্রথা চালু করেন।

এছাড়া নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ভোলা, শরীয়তপুর, মুন্সীগঞ্জ, দিনাজপুর জেলার কয়েকটি স্থানে আজ ঈদ উদযাপন হবে।