স্ত্রীকে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা; স্বামী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ২ মাস আগে

দেবিদ্বার প্রতিনিধি ।। কুমিল্লার দেবিদ্বারে যৌতুকের দাবি পূরণ না করায় স্ত্রীকে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে এক স্বামীর বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী আসাদ সরকারকে আটক করেছে থানা পুলিশ। তাকে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সাদিয়া আক্তার বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন। গত ২৩ এপ্রিল দেবিদ্বার উপজেলা সদরের বানিয়াপাড়ার ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত মোঃ আসাদ সরকার গুনাইঘর গ্রামের নুরুল ইসলাম নুরু সরকারের ছেলে। সাদিয়া একই উপজেলার পদ্মকোট গ্রামের মোঃ ফরিদুল আলম অপু সরকারের মেয়ে।
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে থাকা সাদিয়া এক ভিডিও বার্তায় বলেন, গত ৫ মাস ধরে যৌতুকের জন্য আমাকে প্রতিনিযত শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছে। আমার স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির সবাই শুধু বলত, বাপের বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে আয়। টাকা না দেওয়ায় আমার শরীরে কেরোসিন দিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয় আমার স্বামী। আমি আগুন নেভানোর চেষ্টা করলেও আমাকে বাঁধা দেওয়া হয়।
সাদিয়ার চাচা মোঃ আলমগীর হোসেন আলম বলেন, প্রায় আড়াই বছর পূর্বে সাদিয়ার বিয়ে হয়েছিল। গত ৩মাস পূর্বে একটি কন্যা সন্তান জন্ম দিলেও জন্মের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। ওই ঘটনার পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনমালিন্য চলে আসছিল।
সাদিয়ার স্বামী দেবিদ্বার সদর বানিয়াপাড়া মাটিয়া মসজিদ সংলগ্নে একটি ওয়ার্কশপের ব্যবসা করে। ব্যবসার সুবাদে ওই এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকা অবস্থাই সাদিয়াকে আগুনে পুড়ে হত্যার চেষ্টা করেছিল।
দেবিদ্বার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আরিফুর রহমান জানান, এ ঘটনায় সাদিয়ার বাবা মোঃ ফরিদুল আলম অপু সরকার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। বুধবার রাতে মোঃ আসাদ সরকারকে গ্রেফতার করা হয়েছে।