বৃহস্পতিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শোকজ করা হয়েছিল সম্রাট-খালেদকেরিফাত হত্যায় ৯ জনের বিরুদ্ধে পরোয়ানামিন্নি আদালতে আসলেন বাবার মোটরসাইকেলে করেছাত্রদলের সভাপতি খোকন, সম্পাদক শ্যামলছিঁচকে চুরি, সাগর চুরি আর পিনাটতত্ত্বএকান্ত সাক্ষাৎকার আধুনিক পৌরসভা গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: চৌদ্দগ্রাম পৌরসভার মেয়রহাজীগঞ্জে আমড়া খাওয়ার জন্য প্রাণ দিল আরফাকুমিল্লায় স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামী-শ্বশুর গ্রেফতারবরুড়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণসভা‘বাংলাদেশের শত্রু বাংলাদেশই’সাকিবদের সামনে আফগান চ্যালেঞ্জআফগানিস্তান ম্যাচের আগে হঠাৎ দলে আবু হায়দারপ্রবাসীদের লাশ টাকার অভাবে বিদেশে পড়ে থাকবে না, লাশ আসবে সরকারি খরচে: অর্থমন্ত্রীকুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন- আয়তন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত ৭ বছর ধরে ঝুলে আছে মন্ত্রনালয়েধর্ষণদৃশ্য দেখানোর অপরাধে টিভি চ্যানেলকে জরিমানাজোড়া লাগছে তাহসান-মিথিলার সংসার!মাহমুদউল্লাহদের ১৯৩ রানের টার্গেট দিলেন সাকিবরাবড় সংগ্রহের পথে ঢাকাজাজাইয়ের ব্যাক টু ব্যাক ঝড়ো ফিফটি, উড়ছে ঢাকাঢাকা বনাম খুলনার খেলা দেখুন সরাসরি

‘২১ আগস্ট হামলা মামলায় তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়ে আপিল করা হবে’

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানই ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মাস্টার মাইন্ড বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক, পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, ‘২১ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের যেমন বিচার হয়েছে, তেমনি এ হত্যাকাণ্ডের মাস্টার মাইন্ড তারেকেরও সর্বোচ্চ শাস্তি হতে হবে। সেজন্য উচ্চ আদালতেও আপিল করা হবে।’

বুধবার (২১ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ২১ আগস্টে নিহতদের স্মরণে নির্মিত অস্থায়ী বেদিতে শ্রদ্ধা জানানো শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা অবশ্যই উচ্চ আদালতে যাবো। হরকাতুল জিহাদ নেতা মুফতি হান্নানের বক্তব্যে আছে তারেক রহমানের নির্দেশেই তারা সেদিন হামলা চালিয়েছিল। হত্যাকাণ্ডের যেমন বিচার হয়েছে, হত্যাকাণ্ডের মাস্টার মাইন্ডেরও এমন বিচার হতে হবে। পেপারবুক তৈরি হচ্ছে, এরপর ডেথ রেফারেন্সের শুনানি হবে।’

বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সুসম্পর্ক বিশেষ করে আওয়ামী লীগ-বিএনপির মধ্যে সুসম্পর্ক না থাকায় জন্য বিএনপিকে দায়ী করেন কাদের।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘২০০৪ সালের এই দিনে তৎকালীন বিরোধী দলের নেতা শেখ হাসিনাকে প্রাইম টার্গেট করে শান্তি সমাবেশে সন্ত্রাসীদের দিয়ে রক্তস্রোত বইয়ে দিয়েছিল বিএনপি-জামায়াত সরকার। ১৫ ও ২১ আগস্টের ঘটনা দু’টি একই সূত্রে গাঁথা। সরকরি ও বিরোধী দলের মধ্যে যেরকম সম্পর্ক থাকা দরকার, আমি মনে করি ২১ আগস্টে হামলার মধ্য দিয়ে তা চিরদিনের জন্য শেষ হয়ে গেছে।’

এর আগে বেদিতে তার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ নেতারা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। তারপর জোট শরিক ওয়ার্কার্স পার্টি, জাসদসহ অন্যান্য দল এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *