সংবাদ শিরোনাম
শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০১৯ ইং | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
কুমিল্লায় প্রেমিক যুগলের নগ্ন ভিডিও ধারন করায় ইউপি সদস্য আটককুমিল্লায় বিরল রোগে আক্রান্ত একই পরিবারের চারজনের সহায়তা কামনাকুমিল্লা নগরীতে পণ্য প্রত্যাহারে অভিযান, ৬ দোকানকে জরিমানা জরিমানা : # স্বপ্ন সুপারশপকে- ১০ হাজার টাকা # আমানা বিগ বাজারকে – ৩০ হাজার টাকা # খাকন স্টোর ও যদু লাল সাহার দোকানকে -১০ হাজার টাকা # মেসার্স হক এন্ড সন্সকে ৫ হাজার টাকা # হোসেন মোল্লা হোটেলেকে- ৩ হাজার টাকাকুমিল্লা সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের মনোনয়ন জমা দিলেন টুটুলধানের ন্যায্য মূল্যের দাবী জানিয়ে কুমিল্লা জেলা বিএনপির স্মারক লিপিবাঞ্ছারামপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যুচলন্ত বাসে নার্সকে ধর্ষণের পর হত্যার প্রতিবাদে চৌদ্দগ্রামে মানববন্ধনঅবশেষে বহিস্কার করা হলো ধর্ম কটুক্তিকারী কুবির সেই ছাত্রকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাব্যস্ততা বাড়ছে কুমিল্লার দর্জি পাড়ায়ড্রেজারে আটকে গেল শিশু মারজানার জীবনফেনীতে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ ৫২টি পণ্যকুমিল্লায় বিজিবির সাথে বন্ধুকযুদ্ধে মাদক চোরাকারবারী নিহতকুমিল্লায় বিজিবির অভিযানে মাদকসহ আটক ১গবাদি পশুপালন করে কৃষকদের স্বাবলম্বী করতে হবে – সেলিমা আহমাদ মেরী এমপিকুমিল্লা নামেই বিভাগ হতে হবে – এমপি বাহারকুমিল্লায় মৌসুমী ফলের সমারোহ # আসছে ভারত থেকেওইমলাম ধর্ম ও মহানবী (সা.)কে নিয়ে – আপত্তিকর মন্তব্যের কারণে কুবি শিক্ষার্থী গ্রেফতারবুড়িচংয়ের এ যেন ব্রিজ নয় সাক্ষাত মৃত্যুর ফাঁদঅটোরিকশা চুরির সময় শালা-দুলা ভাই আটকছুটির দিনে কুমিল্লা নগরীতে জম জমাট ঈদ কেনাকাটা

কুমিল্লার আদালতে ঘাতক জামাতার স্বীকারোক্তি- সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে শাশুড়িকে হত্যা করি

স্টাফ রিপোর্টার।।


অবশেষে কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় বৃদ্ধা হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ। হত্যাকান্ডের মাত্র ৪ দিনের মাথায় পুলিশ এর রহস্য উদঘাটন করতে সক্ষম হলো।
বুধবার কুমিল্লার ৪নং আমলী আদালতে নিহত ওই নারীর ঘরজামাই মনির হোসেন মনির হত্যাকান্ডের বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলত জবানবন্দি দিয়েছেন।
এ সময় দায়িত্বরত ভারপ্রাপ্ত সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইরফানুল হক চৌধুরী ১৬৪ ধারায় তার বক্তব্য রেকর্ড করেন। পরে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়। দেবিদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ঘাতক মনিরের শাশুড়ি ফরিদা বেগম (৬২) দেবিদ্বার উপজেলার ধামতি পূর্বপাড়া খোশকান্দি গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের স্ত্রী। মনির হোসেন (৩৫) ফরিদার সৎ মেয়ে আয়েশার স্বামী। ফরিদা বেগমের বসতঘরের পাশেই ঘরজামাই মনির শ্বশুরের দেয়া একখন্ড জমিতে ঘর তুলে স্ত্রী সন্তানসহ বসবাস করে আসছিলেন। তার মূলবাড়ী দেবিদ্বার উপজেলার খয়রাবাদ গ্রামে।
আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিতে মনির জানান, ‘শ্বশুরবাড়ির সম্পত্তি দখলের জন্য গত ৮ অক্টোবর সোমবার রাত ২টায় শাশুড়ির ঘরের জানালার নিচের অংশে সিঁধকেটে ঘরে ঢুকে বালিশচাপায় শাশুড়িকে শ্বাসরোধে হত্যা করি।’
এদিকে সকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে মনিরও অন্যদের সঙ্গে স্বাভাবিকভাবে মৃত শাশুড়ির জন্য কান্নাকাটি করতে থাকেন। প্রাথমিকভাবে তাকে কিছু প্রশ্ন করা হলে তিনি স্বাভাবিক জবাব দিলেও পুলিশের সন্দেহ এড়াতে পারেননি। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন।
ওই ঘটনায় নিহতের মেয়ে মরিয়ম বাদী হয়ে মনির হোসেনকে একমাত্র আসামি করে দেবিদ্বার থানার মামলা করেছেন।
দেবিদ্বার থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান জানান, জিজ্ঞাসাবাদে সৎ মেয়ে আয়েশার স্বামী মনির হোসেন জানিয়েছেন শাশুড়ি অসুস্থ হওয়ায় সৎ মেয়ে জামাইকে দেয়া অংশ ছাড়া বাকি ৬ শতাংশ জমি আগের সংসারের ১ মেয়েসহ ৬ মেয়েকে সমহারে লিখে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ওই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ ছিলেন ঘরজামাই মনির হোসেন। ২০ হাজার টাকা নিয়েও তাকে খারাপ ডোবা জায়গায় থাকতে দেয়া হয় এবং সবসময় ঘরজামাই বলে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করায় প্রতিশোধ নিতে ও শাশুড়ির ঘরটি দখলে নিতেই বালিশচাপায় শাশুড়িকে হত্যা করেছেন বলে ঘাতক মনির স্বীকারোক্তি দিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *