সংবাদ শিরোনাম
শুক্রবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং | ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
মেঘনায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে নদীতে পড়ে মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যুকুমিল্লায় মডেল ইউনিয়ন পরিষদে সনাকের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিতকুমিল্লায় দুই বছরের সাজা প্রাপ্ত আসামী গ্রেফতারকুমিল্লায় বাংলা বানান শুদ্ধিকরণ অভিযানকুমিল্লার হোমনায় পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যানববধূ অপহরণ চেষ্টার মামলায় ছাত্রলীগ নেতা ইসমাইল গ্রেফতারস্কুল ছাত্রকে মেরে বালু চাপা দেয়ার মামলায় দুই আসামি কারাগারেকুমিল্লায় ৩ দিন ব্যাপী বই মেলা শুরুঅপসংস্কৃতি বর্জন ও দেশীয় সংস্কৃতি চর্চায় শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করতে হবে ————এড.টুটুলচৌদ্দগ্রামে গৃহবধু হত্যা মামলার আসামীসহ গ্রেফতার ১৩ট্রাক্টরের চাপায় কুমিল্লায় শিশু নিহতবিএনপি নেতা কর্নেল আজিমের বড় ভাইয়ের ইন্তেকালমুরাদনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ, নিষ্ক্রিয় বিএনপিহোমনার ১৫০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শহিদ মিনার নেই!কুমিল্লায় ভাতিজার চাপাতির কোপে চাচার মৃত্যুকুমিল্লায় এক ছাত্রকে বালু চাপা হত্যার পর মুক্তিপন নিতে এসে অপহরণকারী আটককুমিল্লায় বিজিবির অভিযানে বিপুল পরিমান মাদক আটকসরকারি হাসপাতালের ওষুধের অবৈধ গোডাউনে র‌্যাবের অভিযানসংসদ নির্বাচনের মতো সিটি নির্বাচনেও একই পরিবেশ থাকবে : সিইসিহোমনায় আপন দুই ভাইসহ সাত জনের কারাদন্ড

লাকসামে বিএনপির বিভিন্ন নেতাকর্মীদের মারধর ও বাড়িতে হামলা লুটপাট ও ভাংচুরের অভিযোগ

# মেরে স্বেচ্ছাসেবক দল নেতাকে পুলিশে দেয় যুবলীগ
স্টাফ রিপোর্টার।।


২৩ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধার পর গভীর রাত পর্যন্ত কুমিল্লার ৯ নির্বাচনী এলাকার লাকসামে বিএনপি,ছাত্রদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের বিভিন্ন পর্যায়ে নেতাকর্মীকে মারধর, তাদের বাসা বাড়িতে হামলা, লুটপাট এবং ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে। এর মধ্যে উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধাণ সম্পাদক ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সম্পাদক আমান উল্লাহ আমানকে বেধরক মেরে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। শনিবার আটককৃত আমানকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।এ নিয়ে লাকসামে বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় যুবলীগ ও লাকসাম থানা পুলিশ।
লাকসামের বিএনপি ও বিভিন্ন পর্যায়ের স্থানীয় সূত্র জানায়, শুক্রবার সন্ধার পর কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন সম্পাদক আমান উল্লাহ আমান লাকসাম পৌরশহর সংলগ্ন তার নিজ ইউনিয়নের নরপাটি বাজারের চা দোকানে বসা অবস্থায় থাকাকালীন স্থানীয় ছাত্রলীগের ২০/২৫ জনের একটি সসস্ত্র দল তাকে বেধরক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ অফিসে আটকে রাখে। পরবর্তীতে লাকসাম থানা পুলিশকে খবর দিয়ে আমানকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। এই ঘটনা ঘটার পর গোবিন্দপুর ইউনিয়ন বিএনপি নেতা আবুল কালামকে লাকসাম পৌর সদরের জগন্নাথ বাড়ী এলাকায় যুবলীগ ছাত্রলীগের এক গ্রুপ তাকে আটক করে তাকেও বেধম মারধর করে। এরপর কালামকে লাকসাম বাজারের গরু বাজার এলাকায় গুরুতর আহত অবস্থায় ফেলে যায় তারা। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা শহরের হাসপাতালে প্রেরন করে। এর পর রাত ৯ টার দিকে লাকসাম উপজেলার আজগরা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক আবদুস সালামের বসত বাড়ীতে ছাত্রলীগ য্বুলীগের ক্যাডাররা প্রায় ৪০/৫০ টি মোটর সাইকেল নিয়ে হামলা করে। এসময় সালামের পরিবারের লোকজন ভয়ে ঘরবাড়ী ছেড়ে পালিয়ে যায়। এ সুযোগে ছাত্রলীগ যুবলীগের ক্যাডাররা সালামের বাড়ী ঘর ব্যপক ভাংচুর করে তার ঘরে থাকা সকল দামী মালামাল একটি পিকআপ গাড়ীতে করে লুটে নিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।
এ বিষয়ে লাকসাম উপজেলা নরপাটি ইউপি বিএনপির সভাপতি ইব্রাহিম বলেন, আমাদের ইউপি আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা আবদুল বারেক এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মো. শাহ আলমের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ, যুবলীগের ক্যাডাররা শুক্রবার সন্ধ্যায় আমাদের স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আমান উল্লাহ আমানকে আক্রমন করে । গুরুতর আহত আমানকে তাদের দলীয় অফিসে আটকিয়ে পুলিশকে খবর দিয়ে পুলিশের হাতে সোর্পদ করে। শুক্রবার লাকসামের বিভিন্ন ইইনিয়নে অতর্কিত তারা আক্রমন করে।


এ বিষয়ে জানতে চাইলে লাকসাম উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও লাকসাম পৌরসভার মেয়র মো. আবুল খায়ের বলেন, শুক্রবার যুবলীগ-ছাত্রলীগ কোথায়ও হামলা করেছে বলে আমার জানা নেই। আমরা এখন সবাই উৎসবের আমেজে নির্বাচনের কাজ করছি। বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্যই এবং একটি ইস্যূ তৈরী করার জন্যই এমন মিথ্যা ও বানোয়াট কথা বলছে।
লাকসামের বিএনপি দলীয় সাবেক এমপি এবং কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কর্নেল (অব:) এম আনোয়ারুল আজিম এই প্রতিবেদককে ফোন করে জানান, লাকসাম আওয়ামীলীগ ও এর অংগসংগঠনের নেতাকর্মীরা শুক্রবার সন্থ্যায় সাবেক ছাত্রদল নেতা আমানকে মেরে গুরুতর আহত করে পুলিশে দিয়েছে এবং রাতে বিভিন্ন ইউনিয়ন বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটতরাজ করেছে। তিনি বলেন, পুলিশ যদি রক্ষক হয়ে ভক্ষকের ভুমিকা নেয় তাহলে নির্বাচনের লেভেল প্লেয়িং ফ্লিড কিভাবে হবে।
লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনোজ কুমার দে জানান, সাবেক ছাত্রদল নেতা আমান এলাকায় মারামারি করছিল। স্থানীয়রা ধরে পুলিশের কাছে দেয়। থানায় এনে রাতে আমরা তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করি। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকায় শনিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করি। আর অন্য হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা তিনি জানেন না বলে জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *