বুধবার, ২৬শে জুন, ২০১৯ ইং | ১২ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
কোরবানির ঈদেও ৯ দিনের ছুটিকুমিল্লায় ৬৫ বছরের বৃদ্ধ কর্তৃক প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধষর্ণের অভিযোগসেমিফাইনাল কঠিন, তবে সুযোগ আছে ভালো : রাজ্জাকতিউনিসিয়া থেকে আজ ফিরবেন আরও ২৪ বাংলাদেশিএবার ইউটিউবও কাঁপছে শোয়েবের গতির ঝড়েইংল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার জয়ে খুশি তিন দেশসংসদ থেকে পদত্যাগের হুমকি বাদলেরখেলোয়াড়দের শেষ বয়সে কষ্ট করতে দেব না : প্রধানমন্ত্রীসিগারেটকে সুবিধা দিয়ে বিড়িকে বঞ্চিত করা ঠিক হবে নাহিউম্যান রাইটসের সাথে এলিনা খানের মতবিনিময়কুমিল্লায় আম্পায়ার্স রিফ্রেসার্স কোর্সের উদ্বোধনমেডিকেল টেস্ট থেকে চিকিৎসকদের কমিশন নেয়া বিচ্ছিন্ন ঘটনা: স্বাস্থ্যমন্ত্রীসমন্বিত পদক্ষেপে চারটি শালবনকে পর্যটর কেন্দ্র করা যেতে পারেপাঁচদিনের ছুটিতে স্ত্রী-কন্যাকে নিয়ে ফ্রান্স যাবেন সাকিববাংলাদেশকে ব্যঙ্গ করে পাকিস্তানি পত্রিকায় কার্টুন!অর্থবছরের শেষ তিন মাস আগে লুটপাট শুরু হয়: মতিন খসরুদেশের মানুষের কল্যাণ করাই আ.লীগের একমাত্র লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রীবাজেট পাসের আগেই অস্থির নিত্যপণ্যের বাজারআফগানদের চেয়ে কোথায় এগিয়ে, কোথায় পিছিয়ে বাংলাদেশ!জমে উঠেছে সেমির লড়াই, দাবিদার ৮ দল

কুমিল্লায় মির্জা ফখরুল – রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মধ্যদিয়ে আবারও জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হলো

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মধ্যদিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আবারও জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। এই ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়ার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও প্রশাসন সম্পূর্ণভাবে গণ শত্রুতে পরিণত হয়েছে। নির্বাচনের পূর্বের সহিংসতা, ভোটের দিনের সহিংসতা এবং নির্বাচনের পরবর্তী সহিংসের মধ্যদিয়ে আজ গোটা বাংলাদেশে একটা সহিংস ত্রাস এবং ভীতির নৈরাজ্য সৃষ্টি করেছে। গত ৩০ ডিসেম্বর রাতে নোয়াখালীর সূবর্ণচর উপজেলায় গণধর্ষনের শিকার গৃহবধুকে দেখতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ নোয়াখালী যাওয়ার পথে শনিবার সকালে কুমিল্লার একটি রেস্টেুরেন্টে যাত্রা বিরতি কালে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আরও বলেন, আমরা দেখেছি নোয়াখালীতে আমাদের একটি বোন ধর্ষিতা হয়েছে। ধর্ষণসহ সারা বাংলাদেশের সহিংসতার আমরা নিন্দা জানিয়েছি এবং জনগণের কাছে আমরা আহবান জানিয়েছি এই সহিংসতাকে তাদের প্রতিরোধ করা প্রয়োজন। নির্বাচন কমশিনের কাছে আমরা বলেছি তাদের উচিত হবে এই সহিংসতা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করার জন্য।
যাত্রা পথে এসময় উপস্থিত ছিলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীল কাদের সিদ্দিকী এবং বিএনপির সাবেক এমপি শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *