সংবাদ শিরোনাম
শুক্রবার, ৩রা এপ্রিল, ২০২০ ইং | ২০শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
দাউদকান্দিতে গাড়ি চাপায় অজ্ঞাত ব্যক্তি নিহতসন্ত্রাসী হামলায় কুমিল্লায় এমপি সীমার বডিগার্ড আহতদেশে নতুন করে আরো দুই জন করোনায় আক্রান্ত, মোট ৫৬করোনার কারণে স্বপ্ন দেখাও বারণ: নেপাল এসএ গেমসে বাংলাদেশের প্রথম স্বর্ণজয়ী তায়কোয়ান্ডোকা দিপু চাকমাস্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তা পোশাক নিশ্চিতের দাবি অলিরকসবায় আইয়ুব- ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৭০০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণচান্দিনায় তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে হামলা; বসত ঘর সহ ১০টি ঘর ভাঙচুর ২৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি: আহত ৪করোনায় মৃত ব্যক্তির শরীরে কতক্ষণ ভাইরাস থাকতে পারে?রেল-বাস পর্যায়ক্রমে চালু হবেযথাযথভাবে মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব: নিয়ম ভাঙার হিড়িক, বাড়ছে শঙ্কাতিন চিকিৎসক সন্তানকে ডা.লতিফ- এর চেয়ে বড় মহামারিতেও তোমরা ঘরে যেও নাকরোনা পরিস্থিতি: কুমিল্লায় বাড়ি ভাড়া মওকুফ চান ভাড়াটিয়ারাকরোনায় অসহায়-গরিবদের মাঝে সশস্ত্রবাহিনীর ভ্রাম্যমান চিকিৎসাসেবাকুমিল্লায় সাড়ে পাঁচশো পরিবহন শ্রমিকের মাঝে চাল বিরতণপিপিই সুরক্ষা সরঞ্জাম নেই কুমিল্লার সুপার শপগুলোতে!সরকারি ২৬ বস্তা চালসহ আ. লীগ নেতা আটকহাসপাতাল কর্মচারীদের সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন এমপি বাহারহাসপাতাল কর্মচারীদের সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন এমপি বাহারকরোনাভাইরাসে অর্থনীতির মন্দাভাব ও আমাদের করণীয়করোনা প্রতিরোধে – কুমিল­ায় সেনাবাহিনীর সচেতনতামূলক ভিডিও প্রচার

নামের আগে ‘হযরত’ ডেকে শেখ হাসিনাকে অভিবাদন

“প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৫৬০টি মসজিদ নির্মাণের নির্দেশনার মধ্য দিয়ে এক মহৎ কাজ করেছেন। যা এর আগে কোনো ইসলামী রাষ্ট্রনায়ক করতে পারেন নাই। তিনি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি ইসলামের ইতিহাসে এক অনন্য উচ্চতায় আসীন হয়েছেন। তাই শেখ হাসিনার নাম উচ্চারণ করার আগে তার প্রতি সম্মানসূচক একটি শব্দ উচ্চারণ করতে চাই, ‘হজরত শেখ হাসিনা’ তোমাকে অভিবাদন।”

৩ ফেব্রুয়ারি, সোমবার রাতে ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনিত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন একথা বলেন।

এসময় স্বপন আরো বলেন, ‘পৃথিবীর ইতিহাসে অনেক মুসলিম শাসক ও রাষ্ট্রপ্রধান মহৎ কর্ম করে তার নিজের দেশে এবং বিশ্ব ইতিহাসে অমরত্ব লাভ করেছেন। এসময় তিনি খলিফা হজরত ওমর ফারুক (রা.) ৬৩৪ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ৫৪৪ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত এই এক দশক শাসনামলে পৃথিবীর ইতিহাসে কল্যাণের ইতিহাসে এক ম্যাগনাকার্টার কথা উল্লেখ করেন।’

তিনি বলেন, ‘এখনো ওমরের শাসনামলকে পৃথিবীর ইতিহাসে অন্যতম সুন্দর শাসন আমল হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তিনি ছদ্মবেশে প্রজাদের বাড়ি বাড়ি ঘুরে প্রজাদের দুঃখ কষ্ট লাঘব করতেন। তিনিই সর্বপ্রথম মুসলমান-অমুসলমান সকল প্রজাদের জন্য রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে পেনশন সুবিধা চালু করেছিলেন। এরপর খলিফা হজরত ওসমান (রা.) ৬৪৪-৬৫৬ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত খিলাফতের সময় মসজিদে নববীর পুনঃনির্মাণ কাবাগৃহের উন্নতি, গৃহহীনদের জন্য গৃহ নির্মাণ, রাস্তা, সেতু ও বাঁধ নির্মাণ করে এক অসাধারণ জনকল্যাণ করেছেন। ইসলামের আরো অনেক শাসক অনেক মহৎ কর্ম করে গেছেন।’

তিনি বলেন, ‘ওমর (রা.) মতো শেখ হাসিনা রাতের অন্ধকারে মানুষের বাড়ি বাড়ি ঘুরতে পারেন না। তখন জনসংখ্যা ছিল কম। এখন ১৭ কোটি মানুষের গৃহে যদি যেতে চান তার এক জনমে পৌঁছাতে পারবেন না। এ কারণে তিনি সারা দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে তথ্য সংগ্রহ করে হজরত ওমর ও ওসমানের অনুসরণ করে মানবতার কল্যাণ করছেন। তিনিই প্রথম ইসলামের ইতিহাসে এমন একজন বিখ্যাত নেতৃত্ব যিনি দুঃস্থ মানুষের জন্য বিভিন্ন ধরনের কল্যাণ ভাতা চালু করেছেন। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) ১০ লাখের অধিক রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছেন। কওমি, ইবতেদায়ী মাদরাসাকে স্বীকৃতি দিয়েছেন। আলেমদের জাতীয় জীবনে অবদান রাখার সুযোগ দিয়েছেন।’

সূত্র : বার্তা24

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *