সোমবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
পানির পাইপে আটকা পড়ে লাশ হলেন যুবকছাদে বসে মোবাইলে গেম খেলতে গিয়ে বিদ্যুতের তারে জড়ালেন যুবকস্বপ্ন বন্দি পানিতেশিবগঞ্জে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ভেজাল ওষুধসহ গ্রেফতার ৯একটি মোরগের দাম ২০ হাজার টাকা!অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের জানাজা সম্পন্নঅ্যাটর্নি জেনারেলের সম্মানে আজ সুপ্রিমকোর্ট বসছেন নাবেহাল কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়ক যাত্রী-চালকদের মন খারাপের যাত্রাবাগমারা বাজারে স্থাপনা উচ্ছেদ আতঙ্কে ব্যবসায়ীরাকুমেক হাসপাতাল দীর্ঘ জলাবদ্ধতার দুর্ভোগে চিকিৎসক ও রোগীবুড়িচংয়ে নিখোঁজের দুই মাসে ও উদ্ধার হয় ডলিশরণার্থীর খোঁজে – মৃত ভেবে হানাদার বাহিনী আমাকে ফেলে চলে যায়-আলী আহাম্মদ চৌধুরীঅ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম মারা গেছেনব্রাক্ষনপাড়ায় প্রেমের প্রস্তাব না মানায় তরুনীর দেহ ঝলসে দিল বখাটেরাকুমিল্লায় ৭ কোটি ২৭ লাখ টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস করেছে বিজিবিব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চালের বাজার উর্ধ্বমূখীআশুগঞ্জে ব্যাংক নিরাপত্তাকর্মীর হাত-পা বাধা রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধারড. সাখাওয়াত রাজীবের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনবুড়িচংয়ে গরু চড়াতে গিয়ে ট্রেনের নিচে পড়ে কৃষকের মৃত্যুবিশ্ব পর্যটন দিবস আজ ঘুরে দাঁড়াচ্ছে কুমিল্লার পর্যটন শিল্প

নোয়াখালীতে আত্মসাতের ৭ কোটি টাকা ফেরত দিলেন ব্যাংক কর্মকর্তা

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালী দুদকের মামলায় গ্রেফতার হয়ে ফেনী ঢাকা ব্যাংকের ২৬ গ্রাহকের ৭ কোটি ৫ লাখ ৭৯ হাজার টাকা ব্যাংকে ফেরত দিলেন আত্মসাতকারী কর্মকর্তা।

এ আত্মসাতের কথা জানাজানি হলে ব্যাংকের ম্যানেজার গোলাম আক্তার হোসেন ২০১৯ সালের ১৯ মার্চ ফেনী মডেল থানায় ৮ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে গোলাম সাঈদ রাশেবের বিরুদ্ধে ফেনী মডেল থানায় মামলা করেন। পরবর্তীকালে এ মামলা আদালতের মাধ্যমে দুদকের নিকট তদন্তের জন্য দীর্ঘ তদন্তের পর দুদক গোলাম সাঈদ রাশেবকে গ্রেফতার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করান।

১৬৪ ধারায় দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেন, কয়েকজন গ্রাহকের হিসাব থেকে (বিশেষ করে প্রবাসী) অবৈধ চেকের মাধ্যমে বিভিন্ন দফায় ৭ কোটি ৫ লাখ ৬৯ হাজার টাকা উত্তোলন করে জনৈক আজিম খন্দকারের সঙ্গে ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন।

এ মামলার ধারাবাহিকতায় গোলাম সাঈদ রাশেবের স্ত্রী নাসরিন আক্তার ঢাকা ব্যাংকের ম্যানেজারের নিকট আবেদন করেন, তার স্বামী জামিনে মুক্তি পেলে তারা পারিবারিকভাবে ব্যাংকের আত্মসাৎকৃত সমুদয় টাকা ফেরত দেবেন এবং সে তার নামীয় ঢাকা ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে ২ কোটি ৪০ লাখ টাকার ১টি পে-অর্ডার, ২০ লাখ টাকার ১টি চেক দুদকের মাধ্যমে ব্যাংকে প্রদান করেন।

তিনি জানান, তার স্বামী জামিনে মুক্তি পেলে বাকি টাকা ফেরত দেবেন। সে শর্ত অনুযায়ী আদালতে তার জামিনের আবেদন করলে আত্মসাৎকৃত টাকা ফেরত দেয়ার শর্তে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন। জামিনে আসার পর নোয়াখালী দুদক ৭ কোটি ৫ লাখ ৬৯ হাজার টাকা উদ্ধার করে ব্যাংকে জমা দেয়।

নোয়াখালী দুদকের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ব্যাংকের টাকা আত্মসাৎ করে পরে ফেরত দিলেও গোলাম সাঈদ রাশেব ব্যবসায়ী আজিম খন্দকার, ক্যাশ অফিসার আবদুস সামাদ শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। তাই তারা টাকা ফেরত দিলেও দুর্নীতি দমন আইনে তাদের বিচার চলতে বাধা নেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *