মঙ্গলবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
কুভিক শিক্ষার্থীর উপর সন্ত্রাসী হামলার কলেজ প্রশাসনের নিন্দাকুমিল্লায় স্বস্তির বৃষ্টিতে দুর্ভোগ !নদী দিবসে গোমতীর পাড়ে বাপা নেতৃবৃন্দ দখলদার ও পরিবেশ দূষণকারিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব নির্বাচনে জামি সভাপতি, বিজন সাধারণ সম্পাদককরোনায় নিয়মিত রোগীদের সেবা দিচ্ছেন সনোলজিস্ট ডা. মল্লিকা বিশ্বাসএফডিএ- এর অনুমোদন পেল বেক্সিমকোর ৮ম ওষুধদুই পরিবারের ২০ জনকে অচেতন করে মালামাল লুটবান্ধবীর সন্তান অপহরণ করে প্রেমিকের বাড়িতে গৃহবধূদেশে ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাসএসএইচসি কবে, জানা যাবে বৃহস্পতিবারএক বছর ধরে বানানো ড্রাইভার মালেকের ‘আদুরে’ দরজার দাম কত?আরো অনেক মালেক রয়েছে: স্বাস্থ্য সচিববরখাস্ত হলেন স্বাস্থ্যের সেই ড্রাইভার আব্দুল মালেক‘ডিজি নয়, স্বাস্থ্যের ড্রাইভার হয়ে মরতে চাই’স্বাস্থ্যের ড্রাইভার মালেক প্রসঙ্গে যা বললেন সচিবস্বাস্থ্যের গাড়ি চালক মালেক ১৪ দিনের রিমান্ডেস্বাস্থ্যের ড্রাইভারের ঢাকায় একাধিক বিলাসবহুল বাড়ি, গাড়িকাউন্সিলরের লোক পরিচয়ে কুভিক শিক্ষার্থীর উপর হামলাসাংবাদিকতার খ্যাতি ও বিড়ম্বনা- শাহাজাদা এমরানআমেরিকা-সুইডেনে থেকেও স্বপদে বহাল দুই শিক্ষক

হেফাজত মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী সিসিইউতে

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। গত ৮ ফেব্রুয়ারি বিকালে সত্তরোর্ধ্ব এই প্রখ্যাত হাদিস বিশারদকে চট্টগ্রামের প্রবর্তক মোড়ে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তবে হঠাৎ করে তার স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটলে চিকিৎসকরা তাকে ওই হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ) স্থানান্তর করেন।

বাবুনগরী বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীর রয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন তার ব্যক্তিগত সহকারী মাওলানা ইনামূল হক ফারুকী।

এ বিষয়ে মাওলানা ফারুকী বলেন, সোমবার হুজুরের শরীরে ডায়াবেটিসের মাত্রা বেড়ে যায় এবং বাঁ পায়ে ইনফেকশন (পচন) হয়ে পা ফুলে যায়। তাই মঙ্গলবার সকালে তাকে সিসিইউতে নেয়া হয়েছে।

তিনি আরো জানান, গত শনিবার দুপুরে পাঠদান শেষে বিশ্রামাগারে আসার পর হঠাৎ জুনায়েদ বাবুনগরী জ্বর অনুভব করেন। এরপর থেকে তিনি দুর্বল হয়ে পড়েন এবং তার রক্তচাপ বেড়ে যায়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে বিকালে তাকে চট্টগ্রামের সিএসসিআর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বাবুনগরীর চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক হৃদরোগ এবং মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহীম চৌধুরীর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সিসিইউতে তার শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহীম চৌধুরী।

প্রসঙ্গত, হেফাজত মহাসচিব দীর্ঘদিন যাবৎ হৃদরোগ, রক্তচাপ, লিভার, ডায়াবেটিস, কিডনি, পায়ের ইনফেকশন এবং বার্ধক্যজনিত রোগসহ এসব জটিল রোগে ভুগছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *