সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং | ৯ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
কুমিল্লা শহরে সহপাঠিদের ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র খুনচান্দিনায় ফিল্মি স্টাইলে ৯ম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণ; বাঁধা দিতে গিয়ে আহত ৩ছাত্র নির্যাতনকারী দুই শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশশ্রীলঙ্কায় বর্বরোচিত হামলার নিন্দা ও উদ্বেগ ফখরুলেরশ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় ৩৫ বিদেশি নিহতশ্রীলঙ্কায় সেনা মোতায়েন, জরুরি বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীশ্রীলঙ্কায় ছয় বিস্ফোরণে নিহত ১৮৫শ্রীলঙ্কায় ছয়টি ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ৪২, আহত ২৮০ভুয়া বকেয়া বিলে দিনমজুরের জেলের ঘটনায় পল্লী বিদ্যুতের ১১ জন বরখাস্তনোয়াখালীতে পানিতে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যুরোববার চান্দিনায় আসছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীনজির আহমেদকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুনচাঁদাবাজির অভিযোগে চান্দিনায় সিএনজি চালকদের ধর্মঘটনাঙ্গলকোটে যৌতুকের দাবিতে ৫মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে হত্যানদী দখল- দূষণ মুক্ত করার দাবীতে কুমিল্লায় মানববন্ধননুসরাত হত্যাকারীদের শাস্তির দাবীতে কুমিল্লায় মানববন্ধনযাপিত জীবন: যে ভাবে চলছে কুমিল্লার প্রথম নারী আইনজীবী সহকারী সুরাইয়ার সময়অবশেষে জামিন পেলেন সেই দিনমজুর আব্দুল মতিনঅফিসে উপস্থিত নেই, হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরনকলমুক্ত বিসিএস পরীক্ষা আয়োজনে ১৭৫ ম্যাজিস্ট্রেট

বিশিষ্টজনদের মতামত দ্রুত ‘কুমিল্লা’ নামের বিভাগ ঘোষনা করুন

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।
১৭৯০ সালে ত্রিপুরা জেলা গঠিত হয়ে ১৯৬০ সালে কুমিল্লাকে স্বতন্ত্র জেলার মর্যাদা দেওয়া হয়, কুমিল্লা দেশের প্রাচীন জেলা। ৬২ লক্ষাধিক মানুষের বসবাস এ জেলায়, ১১টি নির্বাচনী আসন। পরপর চারবার বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে কুমিল্লা প্রথম। ১১.৬% মানুষ ব্যবসার সাথে জড়িত, একাধিক শিল্প প্রতিষ্ঠান, গ্যাস ফিল্ড, বিমান বন্দর, অর্ধশতাধিক চিত্তাকর্ষক স্থান, রসমালাই,খদ্দরসহ বহু বিখ্যাত পণ্য রয়েছে কুমিল্লার। কুমিল্লার বহু শিক্ষাবিদ, রাজনৈতিক, কৃষিবিদ, শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, অভিনেতা, ক্রীড়াবিদ, বিজ্ঞানীসহ দেশ পরিচালনার কাজে নিয়োজিত। এত কিছুর পরেও কেন কুমিল্লা নামে বিভাগ হবে না? কুমিল্লা নামে বিভাগ নিয়ে সামাজিক, রাজনৈতিক, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিকসহ কুমিল্লার সাধারণ মানুষে প্রতিক্রিয়া নিচে তুলে ধরা হলো।
প্রফেস রতন কুমার সাহা
অধ্যক্ষ, ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ
শিক্ষা, সাহিত্য- সংস্কৃতির পাদপিঠ কুমিল্লা। এ জেলার ঐতিহ্য রয়েছে। ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত, নবাব ফয়জুন্নেসা, শহীদ রফিকুল ইসলামসহ বহু সূর্য সন্তানকে এ কুমিল্লা বুকে ধারণ করেছে। সংসদে প্রথম কুমিল্লা বিভাগের দাবি জানিয়েছেন ৬ আসনের এমপি হাজী বাহার সাহেব। ভিক্টোরিয়া কলেজের ২৭ হাজার সদস্যের পরিবার থেকে আমি আশাবাদী অতিশীঘ্রই কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন হবে।
ডা. মোসলেহ উদ্দিন,
সাবেক অধ্যক্ষ, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ ।
কুমিল্লা নামে বিভাগ এটা আমাদের অনেক দিনের দাবি। সামাজিক, রাজনৈতিক সকল পেশার মানুষ কুমিল্লা বিভাগের বিষয়ে একমত। বিভাগীয় হেড কোয়ার্টারের জন্য সকল ব্যবস্থা কুমিল্লায় রয়েছে, শুধু প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাকী। আমরা চাই কুমিল্লা বিভাগ কুমিল্লা নামেই হবে, প্রধানমন্ত্রীর নিকট এটাই প্রত্যাশা।
হাসান ইমাম মজুমদার ফটিক
অধ্যক্ষ, অজিতগুহ মহাবিদ্যালয়।
কুমিল্লা নামে বিভাগ দল মত নির্বিশেষে এটা আমাদের দীর্ঘ দিনের দাবি, কুমিল্লা বিভাগ হওয়ার জন্য যা প্রয়োজন, সকল আয়োজন কুমিল্লায় রয়েছে। এখন বিষয় হলো কুমিল্লা বিভাগ অবশ্যই যেন কুমিল্লা নামে হয়। অন্য কোন নামে হলে কুমিল্লার মানুষ তা গ্রহণ করবে না।
বদরুল হুদা জেনু
সভাপতি, সচেতন নাগরিক কমিটি, কুমিল্লা।
কুমিল্লার ১১টি আসনের মধ্যে শতভাগ প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিয়েছে কুমিল্লাবাসী। সাধারণ মানুষ তাদের ওয়াদা পূরণ করেছে, আশা করি প্রধানমন্ত্রীও মানুষের মনের আশা পূরণ করবেন। ভৌগলিক ভাবে, বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, জনসংখ্যা, খাদ্যপূর্ণতা, বৈদেশিক মুদ্রা সার্বিকবাবে চিন্তা করলে বহু আগে কুমিল্লা বিভাগ হওয়ার কথা। বিভাগ দাবি করেছে কুমিল্লা বিভাগ হয়েছে বরিশাল, বিভাগ চেয়েছে কুমিল্লা বিভাগ হয়েছে ময়মনসিংহ। কুমিল্লায় ২১টি বিভাগীয় অফিস রয়েছে, সরকারি ও বেসরকারি বহু পদে কুমিল্লার মানুষ দায়িত্বরত। ৮ লক্ষেরও বেশী প্রবাসী রয়েছে এ জেলার। কুমিল্লা বিভাগ কুমিল্লা নামেই চাই, নয়তো এ অঞ্চল নিয়ে অন্য নামে বিভাগ দরকার নাই। আশা করি প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লার মানুষের ইচ্ছা পূরণ করবেন।

মোস্তাক মিয়া
সাংগঠনিক সম্পাদক
কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপি।
বৃহত্তর কুমিল্লার মানুষের র্দীঘ দিনের প্রাণের দাবি কুমিল্লা বিভাগ। শিক্ষা, সংস্কৃতির কেন্দ্র ভূমি আজ পিছিয়ে আছে রাজনৈতিক কারণে। কুমিল্লা একটি প্রাচীন জেলা, এটা বিভাগ না হয়ে বিভাগ হয়েছে সিলেট, ময়মনসিংহ। কুমিল্লা নিয়ে আর টালবাহানা নয়, কুমিল্লা বিভাগ কুমিল্লা নামেই হতে হবে।
মিতা সফিনাজ
বিভাগীয় প্রধান, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ, ভিক্টোরিয়া কলেজ।
জন্মসূত্রে আমি নোয়াখাইল্লাহ, আমি নোয়াখালীর আগে কুমিল্লা বিভাগ চাই। কারণ কুমিল্লা সকল দিক থেকে সমৃদ্ধ। নোয়াখালী যদি পৃথক বিভাগ হতে চায় হোক। কুমিল্লায় আমরা দু’জন মন্ত্রী পেয়েছি, আশা করি আমাদের রাজনীতিবিদদের সহযোগিতায় দ্রুত কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন হবে।
আঞ্জুম সুলতানা সীমা
সহ-সভাপতি,কুমিল্লা মহানগর আ.লীগ।
কুমিল্লা বিভাগ এটা বহু বছরের দাবি। কুমিল্লা বিভাগ হলে মানুষ উপকৃত হবে। কুমিল্লার মানুষ অনেক খুশি হবে। সমস্যা হলো নাম নিয়ে, নামটা কী হবে এটা নেত্রী ঠিক করে দিবেন।
ইয়াসমীন রীমা ,সভাপতি, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি, কুমিল্লা জেলা শাখা।
চাকুরির বিষয়ে, বিসিএস পরীক্ষাসহ কুমিল্লার মানুষের ঢাকা, চট্টগ্রাম যেতে হয়। কুমিল্লা বিভাগ হলে মানুষের জীবন যাত্রার মানের পরিবর্তন হয়ে যাবে। কী নেই কুমিল্লায়? তারপরও কুমিল্লা কেন বিভাগ হবে না এটা আমার প্রশ্ন? আমরা চাই দ্রুত কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন হোক।
তাহসিন বাহার সূচনা, সাধারণ সম্পাদক,জাগ্রত মানবিকতা।
এখন কুমিল্লা বিভাগের দাবি না, বিভাগ বাস্তবায়ন নিয়ে কথা বলার সময় এখন। আর আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা যা বলেন তাই করেন। তিনি দু’ বছর আগে কুমিল্লায় এসে যখন কথা দিয়েছেন নিশ্চয়ই বিভাগের বাস্তবায়নও করবেন। কুমিল্লার গণ মানুষের নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার প্রথম সংসদ সদস্য হয়েই মহান সংসদে দাঁড়িয়ে কুমিল্লা বিভাগের দাবি উপস্থাপন করেন। শতভাগ যৌক্তিক এ দাবিটি সরকারের সামনে নিয়ে আসেন তিনি। যিনি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করেন,কুমিল্লা এগিয়ে গেলে, এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।
মাহফুজ নান্টু, সিনিয়র রিপোর্টার, দৈনিক আমাদের কুমিল্লা
কুমিল্লা জেলা শিক্ষা-সংস্কৃতির পাদপীঠ, ইতিহাস ঐতিহ্যর ধারক বাহক এসব কথাগুলো সবাই জানে। দ্বিমত পোষণ করার কি আছে। ইতিহাসতো আর মিথ্যা হয়ে যায় না। ঐতিহাসিকভাবেই সমৃদ্ধ এ জনপদ। তবে কথা হচ্ছে দেশের অন্যতম পগ্রসরমান কুমিল্লাকে বিভাগ করতে এ জনপদের মানুষকে আন্দোলন করতে হচ্ছে।
দেশের অন্য যে বিভাগগুলো ইতিমধ্যে বাস্তবায়ন করা হয়েছে তার মধ্যে সিলেট, রংপুর,ময়মনসিহের তুলনায় কোন দিক দিয়ে পিছিয়ে রয়েছে কুমিল্লা ? প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার দু’বছর পেরিয়ে গেলেও এখনো বিভাগ বাস্তবায়ন না হওয়া আমাদের জন্য দুর্ভাগ্যর বিষয়। তবে এটা ঠিক, কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন না হলেও বহু আগে থেকেই কুমিল্লায় বিভাগীয় কার্যক্রম চলছে। যদিও কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়নের জন্য হাজারটা কারণ উপস্থান করা যাবে, তবু কয়েকটা উদাহারণ তুলে ধরলেই অনুমান করা যাবে কুমিল্লা বিভাগ ঘোষণা না করে দেশেরই ক্ষতি হচ্ছে।
কেন জানি মনে হয় রাজনৈতিক কিংবা ব্যক্তিগত হিসেব নিকেশের কারণেই বিভাগ বাস্তবায়নে কুমিল্লাকে পিছিয়ে রাখা হয়েছে। তবে কুমিল্লাকে পিছিয়ে রেখে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব নয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  • 219
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    219
    Shares
  • 219
    Shares



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *