BREAKING NEWS
Search
শুক্রবার, ৩০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
বাঁশ কাটার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে বৃদ্ধের মৃত্যুকুমিল্লায় র‌্যাবের অভিযানে তিন চাঁদাবাজ গ্রেফতারলালমাইয়ে অটোরিকশা চালক নিখোঁজকুমিল্লায় গরু ডাকাতি চক্রের মূল হোতাসহ গ্রেফতার তিনবুড়িচংয়ে প্রিয়নবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদেআহলে সুন্নাত ও ইসলামী ফ্রন্টের মানববন্ধন ফ্রান্স মুসলমানদের হৃদয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে- বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টপ্রায় আড়াই মাস অস্ট্রেলিয়ায় থাকবেন কোহলিরা, সূচি চূড়ান্তকাল পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)৮ ব্যক্তি ১ প্রতিষ্ঠানকে স্বাধীনতা পুরস্কার দিলেন প্রধানমন্ত্রীশুক্রবার থেকে কমতে পারে ইন্টারনেটের গতিসিলেটে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীদের হামলায় প্রবাসী আহতমুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে বুড়িচং উপজেলা কৃষকলীগের কর্মী সভা অনুষ্ঠিতবুড়িচংয়ে যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভাচান্দিনায় সরকারি জমি দখল অভিযোগের তদন্ত শুরুশরণার্থীদের খোঁজে-৪২ : কলেমা শিখে ও নামাজের বই দোকানে রেখেও শেষ রক্ষা হয়নি- নিমাই কুমার দত্তনাঙ্গলকোটে যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিতচৌদ্দগ্রামে স্ত্রীকে হত্যার দুইদিন পরে বিষপানে স্বামীর আত্মহত্যা!তিতাসে ভাবীকে ধর্ষনের অভিযোগে দেবর গ্রেফতারপবিপ্রবি’র অর্থনীতি ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগে নতুন চেয়ারম্যানের যোগদান প্রফেসর আবুল বাশার খানবুড়িচংয়ে পুলিশের অভিযানে গাঁজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী অাটকনাঙ্গলকোটে প্রবাসী কল্যাণ সোসাইটির সেলাই মেশিন ও টিউবওয়েল বিতরণ

বরুড়ায় প্রনোদনা নিতে জিপি সিম ক্রয় করতে বাধ্য করছেন ইউপি চেয়ারম্যান

বরুড়া প্রতিনিধি।।

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার আগানগর ইউনিয়নে প্রায় ৪১৯ জন সম্ভাব্য প্রনোদনা প্রাপ্তিদের গ্রামিন ফোন ( জিপি) সিম ক্রয় করতে ইউপি চেয়াম্যান ইফতেখার আলম শাহিন ও ইউপি সচিব নূরুল ইসলাম সরোয়ারের বিরুদ্ধে বাধ্য করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার (৬ জুলাই) সকালে রিটেইলার রুবেলের মাধ্যমে জিপি সিম বিক্রেতা প্রতিনিধি মিঠু আজ আগানগর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ২০০ টাকা মূল্যে প্রায় ৯০টি সিম বিক্রি করেন।

এছাড়াও একই ইউনিয়নের মির্জানগর ৫ নং ওয়ার্ডে ৩১টি জিপি সিম বিক্রি করে সুজন ও জাফর মেম্বারের ১ নং ওয়ার্ডেও কিছু সংখ্যাক জিপি সিম বিক্রি করা হয়। সিম বিক্রির ব্যাপারে পূর্ব থেকে চেয়ারম্যান ও সচিব মেম্বারদের সাথে সমন্বয় করার বিষয়টি বাবুল ও জাফর মেম্বার সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে, উপজেলার আগানগর ইউনিয়নের নিম্মবিত্ত প্রায় ৬১৩ জনের একটি তালিকা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। গত ৩০ জুনের মধ্যে ৬১৩ জন ২৫০০ হাজার টাকা করে প্রনোদনা পাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু এর মধ্যে কিছু লোক প্রনোদনা পেলেও অধিকাংশরা প্রনোদনার ২৫০০/- টাকা পায়নি। ৬১৩ জনের পাঠানো তালিকা থেকে ৪১৩ জনের তথ্য সংশোধনী চেয়ে পুনরায় মন্ত্রণালয় থেকে নোটিশ আসে। তালিকাভূক্তরা কবে তাদের প্রনোদনার টাকা পাবে সে বিষয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আলম শাহিন জানান, আমরা ৬১৩ জনের একটি তালিকা মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছিলাম। এর মধ্যে আনুমানিক ১০ পার্সেন্ট লোক প্রনোদনা পেয়েছে। এছাড়াও পাঠানো তালিকা থেকে ৪১৩ জনের তথ্য সংশোধনী চেয়ে পুনরায় মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের কাছে একটি নোটিশ আসে।

এর ধারাবাহিকতায় প্রত্যেকের নিজের এন আইডি কার্ড দিয়ে সিম রেজিষ্ট্রেশন করে নতুন ফোন নাম্বারসহ মন্ত্রণালয়ে পুনরায় পাঠানো হবে। এ ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোন কোম্পানীর সিম কিনতে হবে এমন বাধ্যকতা নেই। তাছাড়া আমি সম্ভাব্য প্রনোদনা প্রাপ্তদের জিপি সিম কিনতে বাধ্য করিনি। এ অভিযোগটি সঠিক নয় বলে তিনি মন্তব্য করেন।

বরুড়ার একটি সুনামধন্য অপারেটরের ডিলারের সাথে কথা বলে জানা গেছে, রিটেইলারদের কাছে তারা ১৯০ টাকা দামে সিম বিক্রি করেন। রিটেইলাররা ৯০ টাকা থেকে ১২০ টাকা পর্যন্ত কমিশন পান। সে ক্ষেত্রে অনেক ব্যবসায়ীরা কমিশন ছেড়ে দিয়ে সিম ১০০ অথবা ১২০ টাকা দামে বিক্রি করেন। তবে আমাদের কিছু অফার রয়েছে, যেমন পল্লী এলাকার জন্য একাধিক সিম কিনলে ৪২ টাকা রিচার্জ সহ একটি সিম একশত টাকা বিক্রি করা যায়। তিনি আরো জানান, প্রনোদনা ভোগী মানুষগুলোর কাছ দুইশত টাকায় সিম বিক্রির বিষয়টি খুবই দঃখজনক বলে মত প্রকাশ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *