BREAKING NEWS
Search
শনিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
হোমনায় ছাত্রলীগের হামলায় আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ মজিদ আহতপুরান ঢাকায় রাত যত গভীর যানজট তত তীব্রলঞ্চের স্টাফ কেবিন থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধারদখলে হারিয়ে যেতে বসেছে কুমিল্লার পুরাতন গোমতী নদী১৭ মিলিয়ন শিশুর বিষাক্ত বাতাসে বসবাসচান্দিনায় সরকারি জমি দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলনহোমনায় মার্সেল ডিজিটাল ক্যাম্পেইন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি‘উপহার দেওয়াতে নির্ভেজাল আনন্দ’ হোমনায় ইউএনও’র দেওয়া নতুন পোশাকে জেলেপল্লীর শিশুদের দুর্গোৎসবকুমিল্লা আইনজীবী সমিতির সাবেক সহ সভাপতি এড. মোসলেম মিয়ার ইন্তেকালশরণার্থীদের খোঁজে-৩৬ :ভারতে আশ্রয় নিয়েও পোড়া কপাল জোড়া লাগেনি – গণেশ চন্দ্র ভট্টাচার্যযে কারণে ৬ জনকে সঙ্গে নিয়ে মাকে টুকরো করেছিল ছেলেনোয়াখালীতে মাকে টুকরো টুকরো করে মামলা করলো ছেলে নিজেইকোম্পানীগঞ্জে ধানক্ষেতে মিলল যুবকের অর্ধগলিত মরদেহপুলিশ পরিচয়ে ২৮ লাখ টাকা লুটলাকসামে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আন্ত:জেলা ৬ ডাকাত আটকজাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসে পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিতকুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারের সাবেক সিনিয়র জেল সুপার বজলুল রশীদের বিচার শুরুকুমিল্লায় নারী কাউন্সিলরের গলায় কাটারের আঘাতদেবিদ্বারে গাছের ডাল কাটতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একজনের মৃত্যুকুমিল্লায় আড়াই হাজার ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

হাত-পা বেঁধে ছাত্রকে মারধর, শিক্ষকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

পড়ালেখায় অমনোযোগী হওয়ায় ছাত্র রাকিবুল ইসলামের হাত-পা বেঁধে তাকে মারধর করেছেন সাভারের আশুলিয়ার মধুপুর এলাকার জাবালে নূর মাদরাসার শিক্ষক ইব্রাহীম। পাশাপাশি রাকিবুলকে মারধরের পর পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করায় ওই মাদরাসার অপর শিক্ষার্থী মাহফুজুর রহমানকেও হাত-পা বেঁধে মারধর করেন অভিযুক্ত শিক্ষক।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ঢাকার সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজীব আহসানের আদালতে শিক্ষক ইব্রাহীম ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে একথা জানিয়েছেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

জবানবন্দিতে মাদরাসার শিক্ষক ইব্রাহীম বলেন, ‘আমি জাবালে নূর মাদরাসার শিক্ষক। মাদরাসার ছাত্র রাকিবুল ইসলাম দুষ্টু প্রকৃতির ছিল। সে ইতোমধ্যে মাদরাসা থেকে দুবার পালিয়ে গেছে। সে পড়ালেখায় অমনোযোগী ও দুষ্টুমি করত। এর জের হিসেবে ১১ সেপ্টেম্বর তাকে হাত-পা বেঁধে মারধর করি। তাকে মারার পর মাহফুজুর রহমান নামে আরেক ছাত্র পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করে। তখন তাকেও হাত-পা বেঁধে মারধর করি। ১২ সেপ্টেম্বর রাকিবুলের ফুফু তাকে মাদরাসা থেকে নিয়ে যান। ১৪ সেপ্টেম্বর তাদের মারধরের বিষয়টি এলাকার লোকজন জেনে যায়। তখন তারা এসে আমাকে গণধোলাই দেয়। এরপর আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১৫ সেপ্টেম্বর হাসপাতাল থেকে পুলিশ আমাকে গ্রেপ্তার করেন।’

এর আগে সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে ফেসবুকে দুই মাদরাসাছাত্রকে মারধরের ওই ভিডিও ভাইরাল হলে দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আশুলিয়া থানা পুলিশ। পরে সন্ধ্যায় অভিযুক্ত মাদরাসা শিক্ষক ইব্রাহীমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তার শিক্ষক হাফেজ ইব্রাহিম কুমিল্লা জেলার হুমনা থানার দুর্গাপুর গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে।

ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর আনোয়ার কবির বাবুল গ্রেপ্তার শিক্ষকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আজ ইব্রাহীমকে আদালতে হাজির করে আশুলিয়া থানা পুলিশ। সে স্বেচ্ছায় জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।’

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আশুলিয়ার শ্রীপুরের মধুপুর জাবালে নূর মাদরাসার ছাত্র রাকিবুল ইসলাম (১৩) এবং মাহফুজুর রহমান (১৩) নামের দুই ছাত্রকে অন্য শিক্ষার্থীদের সামনে বেত দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন মাদরাসার শিক্ষক ইব্রাহীম। মারধরের ঘটনায় মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আশুলিয়া থানায় একটি মামলা করেন রাকিবুলের বাবা এমদাদুল ইসলাম।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সিসিটিভির একটি ভিডিওতে দেখা যায়, মাদরাসার একটি কক্ষে অভিযুক্ত শিক্ষক ইব্রাহিম হাতে বেত নিয়ে শিশু শিক্ষার্থী রাকিবুল ইসলামকে পেটাচ্ছেন। একপর্যায়ে শিশু রাকিবুল ওই শিক্ষকের পা ধরলেও তিনি ক্রমাগত পেটাতে থাকেন। একই সময় পাশেই মাহফুজ নামের অপর শিশুছাত্রকে মারধরের পর দড়ি দিয়ে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মেজেতে পড়ে থাকতে দেখা যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *