শনিবার, ২৪শে আগস্ট, ২০১৯ ইং | ৯ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
কিশোর গ্যাং: ‘বড়ভাইদের’ হাত ধরে বিপথগামী কিশোররা বরগুনায় আর নতুন গ্যাং তৈরির সুযোগ হবে না -এসপি মারুফ হোসেনইউরোপের সবচেয়ে বড় মসজিদ উদ্বোধন রাশিয়ায়আমাজন পোড়ার নেপথ্যে সোনা?জ্বলছে পৃথিবীর ফুসফুস, কেমন ঝুঁকির মুখে বিশ্ববিপর্যয়ে পৃথিবীর ‘ফুসফুস’পুড়ে ছাই আমাজনে সেনা মোতায়েনপুড়ে ছাই হচ্ছে ‘পৃথিবীর ফুসফুস’পরিবেশ রক্ষার্থে একদিন পর পর মলত্যাগের পরামর্শ২০ বছরে ২০ লাখ গাছ লাগিয়ে মরুভূমিকে অরণ্য বানালেন এই দম্পতিঅবিশ্বাস্য! টি-টোয়েন্টিতে প্রথমে সেঞ্চুরি, পরে ৪ ওভারে ৮ উইকেটক্রিকেটার শ্রীশান্তের বাড়িতে আগুন, অল্পের জন্য রক্ষা স্ত্রীরকুমিল্লায় ট্রেনে কাটা পড়ে দুই শিক্ষার্থী নিহত সেতুকে বাঁচাতে গিয়ে কাটা পড়ে আদিত্যকুমিল্লায় সেরা বাগানীদেরকে সম্মাননাকুবির ক্যাফেটেরিয়ার খাবারে টিকটিকি!রিফাত হত্যা মামলার চার্জশিট ৩ সেপ্টেম্বরমিন্নিকে কেন জামিন দেয়া হবে না: হাইকোর্টমিন্নির জামিন শুনানি ফের উঠছে হাইকোর্টেমিন্নির জবানবন্দির বিষয়ে জানতে চান হাইকোর্টহাইকোর্টের আরেক বেঞ্চে মিন্নির জামিন শুনানি আজকুমিল্লায় ট্রেনে কাটা পড়ে প্রেমিক-প্রেমিকা নিহত

নাঙ্গলকোটে যৌতুকের দাবিতে ৫মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার।।
নাঙ্গলকোটে যৌতুকের দাবিতে স্বামী এবং তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে অন্তঃস্বত্ত্বা মোমেনা আক্তার টুম্পা (২৩) নামের এক গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার দুপুরে নিহতের শ্বশুরবাড়ি উপজেলার বক্সগঞ্জ ইউপির মদনপুর গ্রামের পালোয়ান বাড়ীর বাথরুমের কমেট থেকে শোয়ানো অবস্থায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। নিহত ওই গৃহবধূ ঢালুয়া ইউপির উরকুটি গ্রামের আনোয়ার উল্লা মজুমদারের (হারুন) মেয়ে। সে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। টুম্পার মৃত্যুর পর থেকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে।
নিহতের ভাই নিজাম উদ্দিন ও মহিনউদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, গত ৭মাস পূর্বে উপজেলার ব´গঞ্জ ইউনিয়নের মদনপুর গ্রামের পালোয়ান বাড়ীর আমিন মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়ার সাথে পারিবারিকভাবে টুম্পার বিয়ে হয়। গত ৪ এপ্রিল টুম্পাকে তার স্বামী দুলাল ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন আনুষ্ঠানিকভাবে বাপের বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়ীতে তুলে আনেন। ৭ এপ্রিল টুম্পা একদিনের জন্য বাপের বাড়িতে বেড়াতে এসে ৮এপ্রিল বাপের বাড়ি থেকে শেষ বিদায় নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে আসেন। শ্বশুরবাড়িতে আসার পর থেকে টুম্পাকে তার স্বামী দুলাল, শ্বাশুড়ি শ্যামলা বেগম, ননদ ফেরদাউস, ভুলু বেগম, ভুলুর স্বামী লিটন, দেবর হামিদ, জ্যা পলি ও ননদের স্বামী বাচ্চু মিয়া যৌতুকের জন্য নির্যাতন করতেন। শ্বশুরবাড়ির যে কোন জিনিস ব্যবহার করলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে বলতেন, তোর বাপের বাড়ি থেকে জিনিসপত্র এনে ব্যবহার কর। এবাড়ির কোন জিনিস ব্যবহার না করতে পারবি না। এছাড়া টুম্পা শ্বশুরবাড়িতে আসার পর থেকে তার স্বামী বাপের বাড়ির লোকজন ও আত্মীয়স্বজনের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করতে দেয় নাই।
তারা আরো জানান, গত বৃহস্পতিবার থেকে টুম্পার মুঠো ফোনে কল করলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। টুম্পার স্বামী দুলালের মুঠো ফোনে বার বার কল করলে সে ফোন রিসিভ করেনি। পরে ফুফাতো বোন নাছিমার মাধ্যমে আজ শুক্রবার দুপুর ২ টার দিকে বোন টুম্পার মৃত্যুর খবর পাই। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে টুম্পার শ্বশুরবাড়ির বাথরুমের কমেটের উপর শোয়ানো অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করেন। তারা বোন হত্যার সুষ্ঠ বিচার দাবি করেন।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, দুলালের টুম্পার পরিবারের নিকট যৌতুক দাবি এবং অন্য এক মহিলার সাথে পরকীয়ায় জড়িত থাকায় স্ত্রী টুম্পাকে হত্যা করেছে।
নাঙ্গলকোট থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) ফরিদ আহম্মেদ জানান, টুম্পার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন............
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *