আদালতে মিথ্যা মামলা করে প্রতিবন্ধীর পরিবারকে হয়রানির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার ষোলনল ইউনিয়নের শিকারপুর গ্রামে আদালতে মিথ্যা মামলা করে প্রতিবন্ধীর পরিবারকে হয়রানি করছে বলে অভিযোগ করেন প্রতিবন্ধী জয়নাল আবেদীন ও তাহার আপন ভাই জাহাঙ্গীর আলম মাস্টার । জানা যায় নিজের জায়গায় ২০-২৫ দিন পূর্বে রডের শর্ট কলাম ও বিল দিয়ে আদাপাকা বিল্ডিং ঘর নির্মান কাজ প্রায় সম্পন্ন করার পরেও ঘরের দরজা জানালা সহ অন্যান্য ফিনিসিং কাজ বন্ধ রাখতে আদালত কর্তৃক ১৪৫ ধারা জারি করে হয়রানি করছে। মিথ্যা মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিবাদীরা অভিযুক্ত যায়গায় জবর দখল করে ঘর নির্মানের জন্য ইট বালু সিমেন্ট জরো করে রেখেছে, অথচ উক্ত স্থানে আজ থেকে ২৫দিন পূর্বেই ঘরটি নির্মিত হয়েগেছে। আদালত কর্তৃক ১৪৫ ধারা জারি করান হুমায়ূন কবির নামের এক ব্যক্তি৷ কারণ দর্শানো নোটিশে বলা হয় নালিশী জায়গায় ঘর করার কারণে ১৪৫ ধারা জারি করা হয়।
ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, আমি আমার নিজের জায়গায় ঘর করেছি কেউ কোন অভিযোগ করেনি। গতকালকে আদালত থকে ১৪৫ ধারা জারি করে আমার ঘরে কাজ বন্ধ করে দেয়। এটা হয়রানি ছাড়া কিছু না। এতদিন ধরে ঘরের কাজ করছি ঘরে কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে এখন ঘরের কাজ বন্ধ করার মানে কি।
স্থানীয়রা জানায় জয়নাল আবেদীন একজন প্রতিবন্ধী মানুষ। সে এতদিন ধরে ঘরের কাজ করছে কোন অভিযোগ নাই। হঠাৎ ঘরে আদালত থকে ১৪৫ ধারা জারি করে ঘরে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। এটা হয়রানি ছাড়া কিছু না। জায়গায় নিয়ে সমস্যা থাকলে যখন ঘরের কাজ শুরু করেছে তখন বলে এটা সমাধান করতো।
ষোলনল ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার মো.মনির হোসেন বলেন, এ জায়গায় সমস্যা থাকলে সে কাজ শুরু করার আগে বলতে পারতো। এখন তার ঘরের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে এখন এসে ১৪৫ ধারা জারি করে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। এভাবে হয়রানি না করে সামাজিক ভাবে বসে সমস্যা সমাধান করা যেত।