কিশোরী প্রেমিকাকে অন্তঃসত্ত্বা করে অন্যত্র বিয়ে, অতঃপর…

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৪ মাস আগে

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে (১৭) ধর্ষণের অভিযোগে প্রেমিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার মো. ফাহাদ উদ্দিন ওরফে রুবেল (২১) উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা। তিনি দুই থেকে তিনদিন আগে অন্যত্র বিয়ে করেছেন।

রোববার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে আসামিকে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়। এর আগে, শনিবার দুপুরে এ ঘটনায় দু’জনকে আসামি করে ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পরে একইদিন রাত সাড়ে ১২টার দিকে অভিযুক্তকে উপজেলার রামপুর ইউনিয়ন থেকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নির্যাতিত কিশোরীর সঙ্গে গত ৭-৮ মাস যাবৎ প্রেমের সম্পর্ক চালিয়ে আসছেন অভিযুক্ত যুবক। একপর্যায়ে গত ৩ ডিসেম্বর রাত ৯টার দিকে উপজেলার একটি খামার বাড়িতে নিয়ে কিশোরী প্রেমিকাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন রুবেল। মামলার ২ নম্বর আসামি জামাল উদ্দিন রুবেলের সঙ্গে ভিকটিমের দেখা সাক্ষাৎ করার কাজে সহযোগিতা করেন।

কোম্পানীগঞ্জ থানার এসআই পুষ্প বরণ চাকমা জানান, ভুক্তভোগী এবং অভিযুক্তের পাশাপাশি বাড়ি। গত ৭-৮ মাস ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে প্রেমিক বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকাকে ধর্ষণ করেন। ঐ প্রেমিক দুই থেকে তিনদিন আগে অন্যত্র বিয়ে করেন। পরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কিশোরীর মা বাদী হয়ে মামলা করেন।

তিনি আরো জানান, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে কিশোরীর মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। সে বর্তমানে অন্তঃসত্ত্বা বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।