কুমিল্লাকে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজমুক্ত করেছি- এমপি বাহার

সোহাইবুল ইসলাম সোহাগ।।
প্রকাশ: ৬ মাস আগে

কুমিল্লা ৬ সংসদীয় আসনের এমপি ও কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, কুমিল্লার এলাকায় এলাকায় মস্তান ছিলো। আমি কুমিল্লাকে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজমুক্ত করেছি। আমি এমপি হওয়ার পর কুমিল্লায় এমন ১ টাও স্কুল-কলেজ বাকি নেই যেখানে আমি ভবন করি নাই। গত ১৫ বছরে ৩৫ কোটি টাকা মসজিদ-মাদরাসায় দিয়েছি। এ টাকা আমি দেয়নি, এ টাকা দিয়েছে শেখ হাসিনা। তাই আমরা যেখানে যাই সেখানে উন্নয়নের কথা বলতে পারি। এই টিক্কারচর ব্রীজ আমি করে দিয়েছি। শাসনগাছা ফ্লাইওভার করে দিয়েছি। শুধু ফ্লাইওভার না ঢাকা যেতে হলে আমতলীর রাস্তা দিয়ে যানজট ছাড়া ঢাকায় যেতে পারবেন। গোলা বাড়িতে ব্রীজ হওয়ার কথা বলেছিলো, সেই ব্রীজ আগামী ২ মাসের মধ্যে টেন্ডার হয়ে যাবে।
শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) কুমিল্লা নগরীর ১৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
আল্লাহকে সাক্ষী রেখে এমপি বাহার বলেন, নেত্রী শেখ হাসিনাকে কে কে চান! সবাই চান! আগামীতে শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে। কারন শেখ হাসিনা সিটিসির মাধ্যমে ডিম পাঠাইছে। তবে সবাইরে দে নাই। যারা গর্ভবতী তাদের কে দিয়েছে। আপনারা ওনাকে ক্ষমতায় আনেবেন নাতো কাকে আনবেন! সন্ত্রাসীদের ক্ষমতায় আনবেন! শেখ হাসিনা বেঁচে থাকার জন্য সবাই দোয়া করবেন।
সাবেক কাউন্সিলর খোকন মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট জহিরুল ইসলাম সেলিম, উপদেষ্টা সেলিম শিকদার, মহানগর আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব বিষয়ক সম্পাদক ।
ত্রি বার্ষিক সম্মেলনে উপস্থাপনায় ছিলেন কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল হাই বাবলু ও ডাঃ তাহসিন বাহার সূচনা।
সম্মেলন শেষে আনোয়ার হোসেন খোকনকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জাহাঙ্গীর হোসেন বাবরের নামসহ ৭১ বিশিষ্ট সদস্য কমিটির নাম ঘোষনা করা হয়।