কুমিল্লা সিটি নির্বাচন নিয়ে উত্তেজনা বাড়ছে কুমিল্লায়

সাক্কু চোর-লুটেরা- এমপি বাহার .............. বাহার সাহেবের মাথা খারাপ হয়ে গেছে-সাবেক মেয়র সাক্কু
শাহাজাদা এমরান ।।
প্রকাশ: ৪ মাস আগে

কুমিল্লা নগরীর সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কুকে চোর-লুটেরা বলে দাবি করেছেন কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার। বৃহস্পতিবার রাতে কুমিল্লা শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত মহানগর আওয়ামী লীগের এক বর্ধিত সভায় এমন মন্তব্য করেন তিনি।
অপর দিকে, এমপি বাহারের এই বক্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বলেছেন, বাহার সাহেবের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তিনি উগ্র আচরণ করছেন।

৮ ফেব্রুয়ারি রাতে মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সভাপাতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এমপি বাহার আরো বলেন, গত সংসদ নির্বাচনে সাক্কু না ঈগলের আছিল? আছিল বলেন? সাক্কু ভেবেছিল সীমা এমপি হলে সে মেয়র হবে। তারপর দুই ভাইবোন মিল্যা, লুইট্যা খাইব কুমিল্লা। কিন্তু আপনারা তা হতে দেননি। ওপরে আল্লাহ আছে, আগামীর মেয়র তাহসিন বাহার সূচনা। আমার মেয়ে বলে বলছি না। তার ধমনীতে আমার রক্ত। সে কখনো অসৎ হতে পারে না। আপনারা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকেন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পৃথিবীর কোনো শক্তি তাকে হারাতে পারবে না। সংসদ নির্বাচনে ১৫২টি কেন্দ্রের কর্মীরা আমার পক্ষে কাজ করেছে। এবার ১০৫টি কেন্দ্রে ওই ১৫২ কেন্দ্রের কর্মীরা সূচনার পক্ষে কাজ করবে ( সদর আসনে ৬টি ইউনিয়ন পরিষদসহ ১৫২টি কেন্দ্র, সিটিতে ১০৫)।

সংসদ সদস্য বাহার উদ্দিন বাহার আরো বলেন, আমি টাকা-পয়সা না আনলে সিটি করপোরেশনে কোনো কাজ হতো না। কিন্তু কিছু দুর্নীতিগ্রস্ত লোক মানুষের হক খেয়ে ফেলেছে। আমি মরে গেলে কুমিল্লার উন্নয়ন হবে না। অনেকে বলে, সাক্কু ভাই ক্যানডিডেট! সে ক্যানডিডেট না, সে চোর-লুটেরা। কী কারণে আপনারা তাকে চুরির সুযোগ দেবেন? তাকে জেলে যেতে হবে। মানুষের হক মেরে খাওয়ার সুযোগ সে পাবে না।

এমপি বাহারের বক্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বলেন, বাহার সাহেবের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তিনি উগ্র আচরণ করছেন। আমি দুর্নীতি করলে আইন আছে। তিনি রাস্তাঘাটে মাইকিং করার কে?

ইউনিয়ন পরিষদ থেকে এমপি কর্মী নিয়ে আসবেন, এমন বক্তব্যের জবাবে সাক্কু বলেন, এগুলো কেমন কথা! ইউনিয়ন পরিষদে আমারও কর্মী আছে। তাই বলে তাদেরকে দিয়ে আমি সিটি করপোরেশন নির্বাচন করতে পারি?

প্রসঙ্গত, গত ১৩ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র আরফানুল হক রিফাত। আগামী ৯ মার্চ এ সিটির উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।