চিরকুট লিখে ও ভিডিও রেখে ব্রাহ্মণপাড়ায় প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা

ব্রাহ্মনপাড়া প্রতিনিধি।।
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

“দেওরের কারণে আমার সংসারটা শেষ হয়ে গেল, আমার শাশুড়ীকে এত সেবার পড়ও ওনি আমাকে সবার সামনে চুর বাইনাইছে আল্লাহ যেন এর বিছার করে।” আত্মহত্যা’র আগে এভাবেই শাশুড়ী ও দেবরের বিরুদ্ধে সৌদি প্রবাসী স্বামীর উদ্দেশে চিরকুট লিখে এবং মোবাইল ফোনে ভিডিও বার্তা দিয়ে গেছেন কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ভারেল্লা গ্রামের মোল্লা বাড়ির সৌদি আরব প্রবাসী নাজমুল হাসানের স্ত্রী মোছা: বিউটি আক্তার (১৮)
শুক্রবার (১২ মে) সন্ধ্যায় ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ ইউনিয়নের জিরুইন দক্ষিণ পাড়ায় বাবার বাড়িতে বসত ঘরের তীরের সাথে ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। বিউটি জিরুইন গ্রামের মামুন মিয়া মেয়ে।
খবর পেয়ে ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেন এবং লাশের পাশ থেকে চিরকুট ও ভিডিও ধারণকৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করেন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বছর তিনেক আগে বুড়িচং উপজেলার ভারেল্লা গ্রামের মোল্লা বাড়ির মৃত সফিউল্লার ছেলে সৌদি প্রবাসী নাজমুল হাসানের সাথে বিয়ে হয় ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ ইউনিয়নের জিরুইন দক্ষিণ পাড়া গ্রামের মামুন মিয়ার মেয়ে মোছা: বিউটি আক্তারের। বিয়ের পর থেকে শ্বশুরবাড়িতে অবস্থান করছিলেন বিউটি। স্বামী প্রবাসে থাকায় টাকা পয়সা সহ নানা বিষয়ে সন্দেহ করেন স্বামী নাজমুলের মা হিরনা বেগম ও দেবর সাইদুল ইসলাম সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। কিছুদিন আগে সবার সামনে চোর উপাধি দিয়ে অপমান করলে বাবার বাড়িতে চলে আসেন বিউটি। পারিবারিক কলহ ও অপমান সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করেন বলে জানা যায়।
ব্রাহ্মণপাড়া থানার উপপরিদর্শক মো. সৌরভ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে বিকালেই ঘটনাস্থলে গিয়েছি। প্রাথমিক লক্ষণ দেখে এটিকে আত্মহত্যা বলেই মনে হয়েছে। তবু মৃত্যুর সঠিক কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হতে তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে৷ ব্রাহ্মণপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ মাহমুদুল হাসান রুবেল বলেন, ঘটনাস্থল থেকে আলামত হিসাবে একটি চিরকুট ও ভিডিও ধারণকৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে । তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।