দাউদকান্দিতে ডিবি পরিচয়ে ৮০ ভরি স্বর্ণ লুট- তিন ঘন্টায় গ্রেফতার দুই

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ মাস আগে

স্টাফ রিপোর্টার ।। কুমিল্লায় ডিবি পুলিশ পরিচয়ে একদল দূর্বৃত্ত লুট করল ৮০ ভরি স্বর্ণ । বিনিময়ে পুলিশ উদ্ধার করল ৮৮ ভরি ৫ আনা স্বর্ণ। সাথে গ্রেফতার হয়েছে দুই দূর্বৃত্ত । ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার দাউদকান্দিতে। বুধবার বিকেল সাড়ে ৪ টা কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( অপরাধ) এম তানভীর আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।
আটক দুজন হলেন কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার সাহাপাড়া এলাকার রাজিব কর্মকার মিঠু (৩৮) ও নোয়াখালী জেলার উত্তর হাজিপুর গ্রামের তপু কর্মকার (৩৬)।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম তানভীর আহমেদ বলেন, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮ টায় নোয়াখালী থেকে গলিত স্বর্ণ নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্য রওনা দেয় নোয়াখালী জেলার নরোত্তম পুর গ্রামের অভিজিৎ কুড়ি।
পথে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে অভিজিৎ কুড়িকে তুলে নিয়ে যায় একদল দূর্বৃত্ত। পরে তার স্বর্ণালংকার লুট করে বেলা ১১ টায় তাকে হাত পা বেঁধে ফেলে যায়। ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা দাউদকান্দি উপজেলার পুটিয়া এলাকায় হাত পা বেঁধে অভিজিৎ কে ফেলে যায় দূর্বৃত্তরা। পরে খবর পেয়ে দাউদকান্দি পুলিশ অভিজিৎ কে উদ্ধার করে।
পরে অভিযান চালিয়ে দাউদকান্দির সাহাপাড়া থেকে প্রথমে রাজিব কর্মকারকে আটক করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যে চাঁদপুরের উত্তর মতলবের বাগান বাড়ি থেকে লুন্ঠিত স্বর্ণসহ তপু কর্মকার নামে আরেকজনকে আটক করা হয়। আটক দুজনেই স্বর্ণ লুটের কথা স্বীকার করেন।
লুট হওয়া স্বর্ণের মালিক সত্য নারায়ণ জুয়েলার্সের মালিক দেব রাজ জানান, আটক রাজিব কর্মকার ও সে সম্পর্কে মামাতো ফুফাতো ভাই। দোকানে থাকা অবস্থায় চুরিসহ নানান অপরাধমূলক কাজ করতো। যার কারনে তাকে দোকান থেকে বের করে দেই। এই ক্ষোভে সে আমার স্বর্ণ লুটের পরিকল্পনা করে।
অভিযানের নেতৃত্ব দেয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দাউদাকান্দি সার্কেল) মোঃ ফয়েজ ইকবাল জানান, লুটের ঘটনায় অন্যান্যদের ধরতে আমাদের অভিযান চলমান আছে। আজ বুধবার রাতে আটক দুজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের শেষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার আসামীদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হবে।