নাঙ্গলকোটে লরি চাপায় বৃদ্ধের মর্মান্তিক মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ১ বছর আগে

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি :
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের অলিপুর বাজারে সোমবার ভোরে বেপরোয়া গতির লরি চাপায় বাইসাইকেল আরোহী আব্দুস ছোবহান (৭৫) নামে এক বৃদ্ধের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। আব্দুস ছোবহান অলিপুর গ্রামের দুবাই প্রবাসী আইউব আলী ভূট্টুর পিতা। দুর্ঘটনার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় বাঙ্গড্ডা বাজারের স্থানীয় লোকজন লরি চালক সাফায়েত হোসেনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় নাঙ্গলকোট থানায় সড়ক দুর্ঘটনা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রায়কোট উত্তর ইউনিয়নের অলিপুর গ্রামের মৃত মোজাফফর আলীর ছেলে আব্দুস ছোবহান ফজরের নামাজ পড়ে ঘরে বসে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত শেষে নাস্তা করার জন্য বাই সাইকেল যোগে অলিপুর বাজারে যান। ওই বাজারের বাচ্চু মিয়ার হোটেলে নাস্তা শেষে পুনঃরায় বাড়ী ফেরার পথে নাঙ্গলকোট-চৌদ্দগ্রাম সড়কের অলিপুর মোহাম্মদীয়া সুফিয়া নূরিয়া হাফিজিয়া মাদরাসা গেইট এলাকায় পিছন দিকে থেকে আসা একটি লরি তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে বৃদ্ধ আব্দুস ছোবহানের মৃত্যু হয়। এসময় লরি চালক একই উপজেলার হেসাখাল গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে সাফায়েত হোসেন লরি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় অলিপুর গ্রামের ইকবাল হোসেন মোটরসাইকেল নিয়ে বাঙ্গড্ডা বাজারে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগীতায় রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে লরির গতিরোধ করে তাকে আটক করে। বেপরোয়া গতি ও চালকরে অবহেলার কারণে বৃদ্ধ আব্দুস ছোবহানের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে দাবী করে স্থানীয়রা লরি চালক সাফায়েতের শাস্তির দাবী করেন।
নাঙ্গলকোট থানা অফিসার ইনচার্জ ফারুক হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লায় প্রেরণ করা হয়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত লরি জব্দ ও চালককে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।