ফেনীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জ, আটক ৪

ফেনী প্রতিনিধি ।।
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

কেন্দ্রীয় ছাত্রদল নেত্রী নুসরাত নাদিয়ার ওপর হামলা ও মিথ্যা মামলায় নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে ফেনীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জেলা ছাত্রদল। মিছিলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে চারজনকে আটক করেছে।

তবে পুলিশ বলছে, মিছিলের সময় ছাত্রদলের দুইগ্রুপে সংঘর্ষ শুরু হলে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠিচার্জ করে চারজনকে আটক করে।

আটকরা হলেন ফেনী পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ ইয়াসিন, পৌর ছাত্রদল নেতা শরিফ, ছনুয়া ইউনিয়ন ছাত্রদল নেতা জসিম, ধর্মপুর ইউনিয়ন ছাত্রদল নেতা হৃদয়।

দলীয় সূত্র জানায়, ছাত্রদল নেত্রী নুসরাত নাদিয়ার ওপর হামলা ও মিথ্যা মামলায় নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে রোববার সকালে শহরের ট্রাংক রোডের জিরো পয়েন্ট থেকে মিছিল বের হয়ে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে সামনে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মিছিলটি শহীদ শহীদুল্লা কায়সার সড়কের জয় কালি মন্দির মার্কেটের সামনে আসলে পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করে। এতে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। এসময় পুলিশ ধাওয়া করে চারজনকে আটক করে।

ফেনী জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মোর্শেদ আলম মিলন বলেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ হঠাৎ লাঠিচার্জ শুরু করে চারজনকে ধরে নিয়ে যায়। লাঠিচার্জে অন্তত ১৫-২০ জন আহত হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন বলেন, মিছিলের সময় ছাত্রদলের দুইগ্রুপে সংঘর্ষ শুরু হলে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠিচার্জ করে চারজনকে আটক করেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ আলম মিলন ও সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন রিয়াদের নেতৃত্বে মিছিলে জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী জুয়েল, সাইফুল ইসলাম জিকু, দপ্তর সম্পাদক আরিফুল ইসলাম চৌধুরী সুমন, সদর উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন, সদস্য সচিব নজরুল ইসলাম, ফেনী সরকারি কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক আবুল হালিম মানিক, ফেনী পৌর ছাত্রদলের সদস্য সচিব ইব্রাহিম হোসেন ইবু, দাঁগনভুইয়া উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক সাইমুন হক রাজিব, সোনাগাজী পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম রিংকু, ছাগলনাইয়া উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব ইব্রাহিম মিয়াজি নয়নসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতারা অংশ নেন।