বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন কুমিল্লা সিটির মেয়র রিফাত

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৪ মাস আগে

সবাইকে কাঁদিয়ে বাবা-মায়ের কবরের পাশে চির ঘুমে শায়িত হলেন কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র ও কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত। প্রিয় নগর পিতাকে হারিয়ে শোকেস্তব্ধ কুমিল্লা নগরবাসী।

গতকাল শুক্রবার বাদ জুমা কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদ গা মাঠে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে তার নামাজে জানাযা শেষে ও দলীয় নেতাকর্মীদের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় নগরীর টমছমব্রিজ কবরস্থানে দাফন করা হয় মেয়র রিফাতকে। এ সময় অসংখ্য নেতাকর্মীদের চোখ দিয়ে পানিতে পড়তে দেখা যায়।

দুর্নীতিমুক্ত ও পরিবর্তনের অঙ্গীকার নিয়ে ২০২২ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর কুসিকের নির্বাচনে প্রথমবার মেয়র পদে অংশ নিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। মাত্র ১৬ মাসের মাথায় এই মানুষটিকে হারিয়ে এক ধরনের শূন্যতা অনুভব করছে নগরবাসী। টমছমব্রিজ কবরস্থানে দাফন শেষে দোয়া করেন মেয়র রিফাতের একমাত্র পুত্র এহতেশামুল হক।

এর আগে নগরীর কেন্দ্রীয় ঈদগা মাঠে মেয়র রিফাতের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে। মন্ত্রী, এমপিসহ,রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, ব্যবসায়ী, সামাজিক-, সাংবাদিক,সাংস্কৃতিক সংগঠনের ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ এতে অংশ নেয়।

জানাযার নামাজ পরিচালনা করেন প্রয়াত মেয়র রিফাতের একমাত্র ছেলে এহতেশামুল হক। এরপর কফিন নেওয়া হয় নগরীর টছমব্রিজ কবরস্থানে।
নামাজে জানাযার পূর্বে প্রয়াত মেয়রের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপি,কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আকম বাহা উদ্দিন বাহার এমপি ও জেলা প্রশাসক খন্দকার মু. মুশফিকুর রহমান।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২ টায় মেয়র আরফানুল হক রিফাতের মরদেহ সিঙ্গাপুর থেকে কুমিল্লা তার নিজ বাস ভবনে আনা হয়। পরে গতকাল শুক্রবার সকাল ৯ টায় সিটি কপোর্রেশন প্রাঙ্গনে নেওয়া হয় কাউন্সিলর ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য । পরে সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজনের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য মরদেহ কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সামনে রাখা হয় এবং এখানে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াসহ বিভিন্ন পেশা ও সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রয়াত মেয়রের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
নামাজে জানাযায় উপস্থিত ছিলেন, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবুল হক মুজিব এমপি, রাজি মোঃ ফখরুল মুন্সি এমপি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজুর রহমান বাবলু, জেলা পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আবদুস সবুর, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যক্তিগত সহকারী আলাউদ্দিন চৌধুরী নাসির, দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি এ জেড এম শফিউদ্দিন শামিম, সাবেক এমপি মনিরুল হক চৌধুরীদক্ষিণ জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক এয়ার আহমেদ সেলিম, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আবদুল মইন, কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান জামাল নাছের প্রমুখ।
উল্লেখ্য, গত বুধবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মেয়র রিফাত।