ভিপি আজাদ অন্যায় কাজকে কখনো প্রশয় দিতেন না

তৃতীয় মৃত্যু বার্ষিকীতে বক্তারা
স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

৯০- এর গণআন্দোলনে কুমিল্লার তুখোড় ছাত্রনেতা ভিপি মিজানুর রহমান আজাদ আদর্শবান ও বিনয়ী ছিলেন। তিনি নিজে কোনো অন্যায় করতেন না। অন্যায় কাজকে তিনি প্রশ্রয় দিতেন না। তিনি শহিদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ ও লালন করেছেন আজীবন। তাঁর স্মরণে একটি স্মারকগ্রন্থ প্রকাশের আহবান জানান বক্তারা। ভিপি মিজানুর রহমান আজাদের ৩য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ১৯৮৫-৮৬ শিক্ষাবর্ষের সম্মান ও পাসকোর্সের শিক্ষার্থীদের আয়োজনে স্মরণসভায় বক্তারা এ আহবান জানান। গতকাল কান্দির পাড় যুব ইউনিয়ন কার্যালয়ে এ স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়।
সিপিবি নেতা আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে ও সংগঠক অধ্যাপক রাহুল তারুণ পিন্টুর সঞ্চালনায় আয়োজিত এ স্মরণসভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ভাষাসৈনিক অজিত গুহ মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ শরিফুল ইসলাম, দৈনিক আমাদের কুমিল্লার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক শাহাজাদা এমরান, জেলা ঐক্য ন্যাপের সাধারণ সম্পাদক বশির আহমেদ, কর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইরফানুল হাসান, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জি এম কবীর, পিআইবি কর্মকর্তা এম এ মনজুর, বিএনপি নেতা রেজাউল হক আখিঁ, অধ্যাপক এনামুল হক, অধ্যাপক আমির হোসেন, বিনয় সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন মাহবুব, কুমিল্লা সাহিত্য পরিষদের সভাপতি সেলিম মিয়াজী, এডভোকেট হুমায়ুন কবির, ঐক্য ন্যাপ নেতা দেলোয়ার হোসেন টুটুল, অধ্যাপক স্বপন কুমার ভৌমিক, অধ্যাপক মামুনুর রশীদ, ডা: শরিফুল ইসলাম, যুব ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি বিপ্লব মজুমদার, সাংবাদিক শ্যামল বড়ুয়া ববি,নবাব ফয়জুন্নেছা ফাউন্ডেশন এর সাধারণ সম্পাদক আজাদ সরকার লিটন, সমতটের কাগজ সম্পাদক জামাল উদ্দিন দামাল, যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জোনায়েদ সাকি প্রমুখ।
ভিপি মিজানুর রহমান আজাদের আত্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন ভাষাসৈনিক অজিত গুহ মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মোঃ শরিফুল ইসলাম।